Hibiscus flower farming: বাড়ির ছাদ বাগানে চাষ করুন জবা, দেখে নিন সহজ উপায়

রায়না ঘোষ
রায়না ঘোষ
Hibiscus tree (image credit- Google)
Hibiscus tree (image credit- Google)

আমাদের দেশের এক অতি প্রচলিত ফুল হলো জবা যা "চিনা গোলাপ বা রোজমেলো" নামেও পরিচিত | শুধু পুজোর ক্ষেত্রেই নয়, জবা ফুলে থাকে রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতাও | আবার, মহিলারা এই জবা ফুল ব্যবহার করে বাড়িয়ে তোলেন চুলের সৌন্দর্য্য | দেখে নিন , কিভাবে সহজেই বাড়িতে টবের মধ্যে রকমারি রঙের জবা ফুলের চাষ করবেন |

সঠিক চারা নির্বাচন :

প্রথমে, নার্সারী থেকে ছোট আকারের বেশ মোটা কাণ্ডের সুস্থ চারা সংগ্রহ করতে হবে | জবা গাছের জন্য প্রয়োজনীয় ১২ ইঞ্চি টব | এছাড়া, বড় সিমেন্টের ব্যাগেও চাষ করতে পারেন জবা |

সঠিক পদ্ধতিতে মাটি প্রস্তুতি(Soil):

যে কোনো মাটিতেই জবা গাছ জন্মায় | তবে, বেলে দোঁআশ মাটি  এই চাষের জন্য উপযুক্ত | টবে চারা রোপণের আগে ৫০% বেলে দোঁআশ মাটি, ৪০% শুকনো গোবর এবং ১০% লাল সিলেকশন বালি মিশিয়ে মাটি বানিয়ে ফেলতে হবে | এর সাথে, দুমুঠো ছাই ও এক মুঠো হাঁড়ের গুঁড়োও মিশিয়ে নিতে পারেন | এটি করলে, মাটির উর্বরতা বজায় থাকবে বহুদিন | চারা রোপণের পর ধীরে ধীরে চাপ দিয়ে গোড়ার মাটি শক্ত করতে হবে | "ঝিনুক চুন" ৫ লিটার জলে ১ চা চামচ মিশিয়ে মাটিতে প্রয়োগ করতে হবে | এছাড়াও, গাছে প্রচুর ফুল পেতে ১০ দিন ছাড়া ছাড়া সর্ষের খোল পচা জল দিতে হবে |

আরও পড়ুন - Green Grass Preservation: শিখে নিন বর্ষায় সবুজ ঘাস সংরক্ষণ করার পদ্ধতি

গাছের পরিচর্যা:

গাছ লাগানোর পরক্ষনেই রোদে রাখা উচিত নয় | কয়েকদিন ছায়ায় রেখে তারপর রোদে রাখতে হবে | ভোরবেলা, সন্ধ্যেবেলা টবে জল দিতে হবে | দ্রুত বাড়তে শুরু করলে গাছকে সোজা রাখতে বাঁশের কঞ্চির সাহায্য নিতে হবে | বিশেষজ্ঞদের মতে,  এই গাছকে বছরে দু’বার ছেটে দিতে হবে। ফাল্গুন-চৈত্র ও ভাদ্র-আশ্বিন মাসে গাছটিকে ছেটে দেওয়ার কাজ করতে হবে। সব সময় টবের মাটি আগাছামুক্ত রাখতে হবে।

রোগ:

জবা গাছে ছত্রাক ও মিলিবাগের আক্রমণ হয় খুব বেশি | এছাড়াও , জবা গাছের পাতা অনেকসময় হলুদ হয়ে যায় এবং গাছে সাদা পোকা দেখা যায় |

প্রয়োজনীয় কীটনাশক(disease management system):

জবা গাছের জন্য বাড়িতেই কীটনাশক বানানো যায় | ১টি ছোট দেশি পেঁয়াজ , ১ চা চামচ সাদা গোল মরিচ এবং ১টি ছোট রসুন ব্লেন্ডারে ভালো করে ব্লেন্ড করে মিশ্রণটি ১ লিটার জলে গুলিয়ে ১ টেবিল চামচ "ট্রিকস" লিকুইড ডিসওয়াশ মিশিয়ে বোতলে রেখে দিতে হবে | এরপর মিশ্রণটি ছাঁকনির সাহায্যে ছেঁকে পরিষ্কার তরলটুকু গাছের ডালে, পাতার নিচে স্প্রে করতে হবে | তবে, খেয়াল রাখতে হবে স্প্রে করার সময় মিশ্রণটি যেন মাটিতে না পরে, তাই মাটিতে খবরের কাগজ বিছিয়ে দিতে হবে |গাছের পাতা হলুদ হলে, গোড়ায় ১০ দিন ছাড়া সৈন্ধব লবণ দিতে হবে |

গাছের প্রয়োজনীয় পুষ্টির জন্য, ভাতের মারের সাথে তিনভাগ জল মিশিয়ে তা বিকেলে গাছের গোড়ায় অন্তত সপ্তাহে একদিন প্রয়োগ করতে হবে | এতে জবা গাছটি প্রয়োজনীয় পুষ্টি পাবে|

আরও পড়ুন -Shing Fish Farming: পুকুরে লাভজনক শিং মাছ চাষ করে দ্বিগুন উপার্জন করুন

Like this article?

Hey! I am রায়না ঘোষ . Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters