সঠিক নিয়মে 'গাছ আলু' চাষ পদ্ধতি (Method Of Potato Cultivation)

Monday, 18 January 2021 03:54 PM
Potato Cultivation (Image Credit - Google)

Potato Cultivation (Image Credit - Google)

গাছ আলু  গাছের বৈজ্ঞানিক নাম Dioscorea alata যা 'Dioscoreaceae' পরিবারভুক্ত উদ্ভিদ। ইংরেজিতে একে, greater yam, Guyana arrowroot, এর আদিনিবাস এশিয়ার ক্রান্তীয় অঞ্চল।

আরো কিছু বিশেষ নাম হলো -

মেটে আলু, পেস্তা আলু, চুপরি আলু, মাচা আলু, গজ আলু, মোম আলু, মাইট্টা আলু, মাছ আলু, প্যাচড়া আলু বা প্যাচরা আলু। গাছ আলু (Potato cultivation) আমাদের দেশে পেস্তা আলু বা বাতাসী আলু নামে পরিচিত। সম্প্রতি আমাদের দেশে গাছ আলু বাণিজ্যিকভাবে চাষ করা হচ্ছে। এই গাছ আলুর পাতার কক্ষে গোলাকার অমসৃণ ত্বকবিশিষ্ট বুলবিল বা আলু উৎপন্ন হয়। এর বুলবিল বা গাছে জন্মানো আলু সবজি হিসেবে রান্না করে খাওয়া হয়। আসুন জেনে নেই গাছ আলু চাষ করার পদ্ধতি।

গাছ আলু চাষে প্রয়োজনীয় জলবায়ু ও মাটি:

গাছ আলু গাছ চাষ করার জন্য উষ্ণ আবহাওয়া দরকার। তবে উপকূলীয় অঞ্চলে গাছ আলুর চাষ ভাল হয় না।

তবে যে স্থানে সূর্যের আলো পড়ে না সেস্থানে গাছ আলুর চাষ ভাল হয় না।

জৈব পদার্থসমৃদ্ধ বেলে দোআঁশ ও দোআঁশ মাটিতে ভালো হয়।

চারা তৈরি পদ্ধতি:

বুলবিল এবং মাটির নিচের কন্দ দ্বারা গাছ আলুর চারা তৈরি করা হয়। গাছ আলুর একটি গাছে প্রায় ২০০ টি বুলবিল বা আলু তৈরি হতে পারে। গাছ আলু গাছের প্রতিটি বুলবিল দিয়ে একটি চারা তৈরি করা সম্ভব। মনে রাখবেন বুলবিল গাছ বা মাটিতে এক বছর পর্যন্ত সজীব থাকতে পারে।

জমি তৈরি ও চারা রোপন:

গাছ আলুর চাষ করার ক্ষেত্রে মাদা তৈরি করে নিতে হবে।

মাদায় নিয়ম অনুসারে সার প্রয়োগ করতে হবে।

গাছ আলু লাগানোর জন্য প্রথমে গর্ত তৈরি করে নিতে হবে। ১০ কেজি গোবর সার ও অন্যান্য সার মাটির সাথে মিশিয়ে গর্ত ভরতে হবে।

এরপর গর্ত একসপ্তাহ এভাবে রখে দেওয়ার পর বুলবিল লাগাতে হবে।

সার প্রয়োগ/ব্যবস্থাপনা:

গাছ আলু চাষ করার ক্ষেত্রে ১০ কেজি গোবর সার, ১৫০ গ্রাম থেকে ২০০ গ্রাম টিএসপি সার ও ১০০ থেকে ১৫০ গ্রাম এমওপি সার প্রতিটি গর্ত বা মাদায় দিতে হবে। গাছের বৃদ্ধির জন্য অল্পপরিমাণ ইউরিয়া সার দিতে পারেন। চারা লাগানোর প্রাথমিক পর্যায়ে এসব সার জমিতে দিতে হবে।

সেচ ব্যবস্থাপনা:

  • বর্ষার সময় গাছ আলু ক্ষেতে সেচ দেয়ার কোন প্রয়োজন নেই।

  • তবে খেয়াল রাখতে হবে গাছ আলু গাছের গোড়ায় যেন পানি না জমে। পানি জমলে সঙ্গে সঙ্গে তা অপসারনের ব্যবস্থা করতে হবে।

  • শুষ্ক মৌসুমে গাছের গোড়ায় সেচ দিতে হবে।

আগাছা দমন:

  • গাছ আলু গাছের গোড়ায় আগাছা জন্মাতে দেওয়া যাবে না। যদি কখনও গাছের গোড়ায় আগাছা হয় তাহলে তা পরিষ্কার করতে হবে।

  • গাছ একটু বড় হলেই গাছ বাড়ার জন্য বাউনি তৈরি করতে হবে। গাছ যাতে সঠিকভাবে বাড়তে পারে সেজন্য গাছ আলুর গাছ কোনো কাঠের গাছ বা অফলা গাছের কোলে লাগাতে হবে।

  • অথবা যেসব গাছের ডালপালা ও পাতা বেশি ও ঘন সেসব গাছ বাউনি দেয়ার জন্য ব্যবহার করা যায়।

পোকামাকড় ও রোগদমন - 

  • গাছ আলু গাছে তেমন কোন পোকার আক্রমণ হয় না। তবে মেটে আলুর মত বিছা ও লেদা পোকা মাঝেমধ্যে পাতা খায়।

  • আলু অথবা বুলবিল পরিণত হলে একটা একটা করে হাত দিয়ে গাছ থেকে ছিঁড়ে তুলতে হবে। একটি গাছে ২০০ টি পর্যন্ত আলু হতে পারে। প্রতি হেক্টরে ১৫ টন পর্যন্ত গাছ আলু হতে পারে।

আরও পড়ুন - জানুন বেগুন গাছে জ্যাসিড পোকার আক্রমণ রোধে কি কি করণীয় (Insect Attack On Eggplant)

English Summary: Potato cultivation method with proper way

আপনার সমর্থন প্রদর্শন করুন

প্রিয় অনুগ্রাহক, আমাদের পাঠক হওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার মতো পাঠকরা আমাদের কৃষি সাংবাদিকতা অগ্রগমনের অনুপ্রেরণা। গ্রামীণ ভারতের প্রতিটি কোণে কৃষক এবং অন্যান্য সকলের কাছে মানসম্পন্ন কৃষি সংবাদ বিতরণের জন্যে আমাদের আপনার সমর্থন দরকার। আপনার প্রতিটি অবদান আমাদের ভবিষ্যতের জন্য মূল্যবান।

এখনই অবদান রাখুন (Contribute Now)

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.