কৃষিকাজে ফসল সংগ্রহ ও বাজারজাত করার ক্ষেত্রে কৃষকদের উদ্দেশ্যে সরকারের পক্ষ থেকে জারি বিশেষ নির্দেশিকা

Tuesday, 06 April 2021 12:35 PM
Crop Harvesting Method In Covid Situation (Image Credit - Google)

Crop Harvesting Method In Covid Situation (Image Credit - Google)

আবার সংক্রমণ বাড়ছে করোনা ভাইরাসের। বর্তমানে নতুন করে এক লাখেরও বেশী মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন এই ভারিরাসে। প্রথম দফায় কোভিড-১৯ সংক্রমণে দেশ জুড়ে লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বহু কৃষক। আবারও সংক্রমণে কৃষি ক্ষেত্রে কৃষকদের রক্ষার্থে বিশেষ সতর্কতা জারি করা হয়েছে সরকার থেকে।

বর্তমানে মাঠে থাকা ফসল সংগ্রহ এবং বাজারজাত করার জন্য কৃষকদের উদ্দেশ্যে সরকারের পক্ষ থেকে কিছু নির্দেশ জারি করা হয়েছে। কৃষকদের এবং সকলের সুরক্ষার জন্য সরকার এই নির্দেশগুলি জারি করেছেন। সুতরাং, কৃষকদের জন্য এগুলি মেনে চলা একান্ত আবশ্যক।

বর্তমানে মাঠে থাকা ফসলসমূহ (Crops currently in the field) –

১) যে সমস্ত এলাকায় গম চাষ হয়, সেখানকার তাপমাত্রা দীর্ঘমেয়াদী গড় তাপমাত্রার থেকে এখনও বেশ অনেকটা নীচে। যার ফলে গম কাটা ১০-১৫ দিন পিছিয়ে এপ্রিল মাসের ২০ তারিখ পর্যন্ত করলেও ফসলের উৎপাদন খুব বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। এতে কৃষকরা ঝাড়াই-মাড়াই করে বাজারজাত করার জন্য বাড়তি অনেকটা সময় পাবেন।

২) পাকা ধান মাঠে থাকা অবস্থায় যদি অসময়ে বৃষ্টি হয়, তাহলে গাছেই দানার অ̀ঙ্কুরোদগম (কল হওয়া) আটকাতে ৫ শতাংশ লবণ জল স্প্রে করা যেতে পারে।

৩) আম গাছে এখন গুটি থেকে মুকুল ধরছে। এই অবস্থায় স্প্রে করে সার বা শস্য সুরক্ষার জন্য কীটনাশক ও ছত্রাকনাশক প্রয়োগ করার সময় বিভিন্ন সামগ্রী বহন করা, মেশানো এবং যন্ত্রপাতি ধুয়ে পরিষ্কার করার সময় প্রয়োজনীয় সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।

৪) গ্রীষ্মকালীন ডালশস্য যেমন মুগ, ইত্যাদিতে সাদা মাছির আক্রমণ ও তার ফলে হলুদ মোজেয়িক ভাইরাস রোগ হতে পারে। এক্ষেত্রেও নিজেদের সুরক্ষা সাবধানতা অবলম্বন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

ফসল তোলা, গুদামজাতকরণ এবং বাজারজাত করার সময়ে সতর্কতা (Guidelines) -

১) কৃষি খামারে ফসল শুকানো, ঝাড়াই, মাড়াই, পরিষ্কার করা এবং প্যাকেজিং-এর বিভিন্ন স্তরে যাতে করে শ্বাসনালীতে ধুলো এবং এরোসল প্রবেশ করে শ্বাসকষ্ট ঘটাতে না পারে, সেজন্য মুখে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

২) শস্যের গুদামজাত করার আগে সেগুলিকে ভালোভাবে শুকিয় নেওয়া দরকার। গুদামের পোকা যাতে আক্রমণ না করে সেজন্য পুরানো বস্তা ব্যবহার করা উচিৎ নয়। চটের বস্তাকে ৫ শতাংশ নিম দ্রবণে ডুবিয়ে শুকিয়ে নিয়ে ব্যবহার করলে ভালো হয়।

৩) ভবিষ্যতে ফসলের ভালো দাম পাবার সম্ভবনাকে সুনিশ্চিত করতে এবং খামারে উৎপাদিত শস্যকে যাতে পূর্ণমাত্রায় গুদামজাত করা যায়, সেজন্য পর্যাপ্ত সংখ্যার চটের বস্তা মজুত আছে কিনা, তা আগেভাগেই দেখতে হবে।

৪) বাজার/মান্ডিতে বিক্রি করার সময় যখন ফসল গাড়িতে তোলা হবে এবং নিয়ে যাওয়া হবে, তখন উপযুক্তভাবে ব্যক্তিগত স্তরে জীবাণু প্রতিরোধী নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

৫) যে সমস্ত কৃষকরা বীজ উৎপাদন করছেন, তারা বীজ বিক্রয়ের জন্য উপযুক্ত নথিপত্র সহ বীজ বিক্রেতা কোম্পানিতে নিয়ে যেতে পারবেন। বিক্রয়মূল্য গ্রহণের সময়ও তাদের উপযুক্ত সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

৬) বীজ উৎপাদনকারী রাজ্যগুলি থেকে বীজ প্রক্রিয়াকরণ এবং প্যাকেজিং করে বীজ ব্যবহারকারী রাজ্যগুলিতে পরিবহন হওয়া অত্যন্ত প্রয়োজনীয়, যাতে করে পরবর্তী খরিফ মরসুমে বীজের যোগান অক্ষুণ্ণ থাকে, যেমন সবুজ গো-খাদ্যের বীজ উত্তরের রাজ্যগুলিতে এপ্রিল মাসে বোনা হয়, তা দক্ষিণের রাজ্যগুলি থেকেই আসে।

৭) মাঠ থেকে বিভিন্ন শাকসব্জি যেমন টমেটো, ফুলকপি, বিভিন্ন ধরণের শাক, শসা, লাউ, কুমড়া ইত্যাদি সরাসরি বাজারজাত করার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ ও সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।

আরও পড়ুন - GADVASU- PMMSY অর্থায়নে মৎস্য প্রকল্পের জন্য প্রথম বিশ্ববিদ্যালয়

কৃষি সরঞ্জাম স্যানিটাইজ করা -

কৃষকদের কেবল মেশিনচালিত সরঞ্জাম দিয়ে ফসল সংগ্রহের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যদি তারা হস্তচালিত ডিভাইসগুলি ব্যবহার করেন, তবে তাদের কিছু সতর্কতা গ্রহণ করা দরকার। এ জাতীয় পরিস্থিতিতে কৃষকদের এই সরঞ্জামগুলি ব্যবহারের আগে স্যানিটাইজ করা উচিত। এই স্যানিটাইজেশনটি দিনে কমপক্ষে ৩ বার করা উচিত। কৃষকরা সরঞ্জাম স্যানিটাইজ করতে সাবান জল ব্যবহার করতে পারেন।

কৃষকদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে -

রাজস্থানের কৃষি বিভাগও ফসল সংগ্রহের ক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্বকে বজায় রাখার জন্য নির্দেশনা দিয়েছে। এটি কঠোরভাবে অনুসরণ করতে হবে। কৃষকরা যদি জমিতে কোন কাজ করেন, বা পরস্পরের সঙ্গে কথা বলছেন বা খাচ্ছেন,  তবে একে অপরের সঙ্গে কমপক্ষে ৬ মিটার দূরত্ব বজায় রাখুন।

খাবারের পাত্রগুলি আলাদা করে রাখুন -

যদি জমিতে কর্মরত কৃষক বা শ্রমিকরা খাবার খান, তবে খাবারের পাত্রগুলি আলাদা করে এবং দূরে রাখুন। খাবার খাওয়ার পরে, বাসনগুলি সাবান দিয়ে ভাল করে পরিষ্কার করুন। আপনার জলের বোতল বা বাসন আলাদা রাখুন এবং কাউকে সেগুলি ব্যবহার করতে দেবেন না।

কৃষকরা ফসল কাটার সময় হাত পরিষ্কার রাখুন -

  • ফসল সংগ্রহের সময়, কৃষকরা কিছু সময় অন্তর অন্তর সাবান দিয়ে হাত ভালভাবে পরিষ্কার করে নিন।

  • একই পোশাক বারবার ব্যবহার করবেন না -

  • ফসল সংগ্রহকালে, কৃষকদের বারবার একই পোশাক পরা উচিত নয়। কাজ হয়ে যাওয়ার পর পরিধেয় পোশাক ধুয়ে ফেলুন এবং রোদে শুকানোর পরেই এটি পুনরায় ব্যবহার করুন।

আরও পড়ুন - মাত্র ১১৯ টাকায় বুক করুন এলপিজি সিলিন্ডার, দেখুন বুকিং প্রসেস

English Summary: Guidelines issued by the govt for the purpose of collecting and marketing crops in agriculture

আপনার সমর্থন প্রদর্শন করুন

প্রিয় অনুগ্রাহক, আমাদের পাঠক হওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার মতো পাঠকরা আমাদের কৃষি সাংবাদিকতা অগ্রগমনের অনুপ্রেরণা। গ্রামীণ ভারতের প্রতিটি কোণে কৃষক এবং অন্যান্য সকলের কাছে মানসম্পন্ন কৃষি সংবাদ বিতরণের জন্যে আমাদের আপনার সমর্থন দরকার। আপনার প্রতিটি অবদান আমাদের ভবিষ্যতের জন্য মূল্যবান।

এখনই অবদান রাখুন (Contribute Now)

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.