Milkha Singh: ৯১ বছরে প্রয়াত "উড়ন্ত শিখ" তথা কিংবদন্তি অ্যাথলিট মিলখা সিং

KJ Staff
KJ Staff
Milkha Singh (Image Credit - Google)
Milkha Singh (Image Credit - Google)

একদা যার জীবনের লক্ষ্য ছিল ডাকাত হওয়ার, সেই মিলখা সিং হয়ে উঠেছিলেন ভারতের গর্ব | হ্যাঁ, জীবনযুদ্ধে ধাক্কা খেতে খেতে ভেবেছিলেন ডাকাত হবেন | চোখের সামনে রক্তের হোলিখেলায় লুটিয়ে পড়তে দেখেছিলেন বাবা, মা, এক ভাই এবং দুই বোনকে ৷ প্রাণ বাঁচাতে ছুটতে শুরু করেছিলেন | ১৯২৯ সালের ২০ নভেম্বর জন্মগ্রহণ করেছিলেন গোবিন্দপুর এখন পঞ্জাবের মুজঃফরগড়ে |

দিল্লিতে তার দিদির কাছে ঠাঁই হয়েছিল অনাথ মিলখার | কিন্তু, বিনা টিকিটে রেলসফরে মিলখাকে যেতে হল তিহাড় কারাগারে ৷ গয়না বেচে ভাইয়ের মুক্তির ব্যবস্থা করেছিলেন দিদি তবে, দিদির শশুরবাড়িতে তার আর জায়গা হয়নি | তখনই ভেবেছিলেন, তিনি ডাকাত হবেন ৷ সে ইচ্ছে পূর্ণ হল না দাদা মলখনের দৌলতে ৷ ভাইকে সুপথে ফিরিয়ে আনতে পরামর্শ দিলেন ভারতীয় সেনাবাহিনীতে যোগদানের ৷

১৯৫১ সালে, চতুর্থ বারের প্রচেষ্টায় ভারতীয় সেনাবাহিনীতে প্রবেশাধিকার পেলেন মিলখা ৷ সেকেন্দরাবাদে ইলেকট্রিক্যাল মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং সেন্টারে শুরু হল কাজ ৷ জীবনের অভিধানে প্রথম বার পা রাখল ‘অ্যাথলেটিক্স (Legendary athlete) শব্দ৷ নতুন নিযুক্তদের মধ্যে বাধ্যতামূলক দৌড়ের ইভেন্টে তিনি ষষ্ঠ স্থান পেলেন ৷ শুরু হল তার জীবনের দৌড় | ১৯৫৬ সালে মেলবোর্ন অলিম্পিক্সের সুযোগ ৷ ফিরেছিলেন পদকশূন্য কণ্ঠ এবং অভিজ্ঞতায় ভরপুর হৃদয় নিয়ে ৷

মিলখা সিং-র প্রাপ্তি (Achievements of Milkha Singh):

১৯৫৮-য় টোকিয়ো এশিয়ান গেমসে দু’টি সোনা ৷ স্বর্ণপদক এল ১৯৫৮ কমনওয়েলথ গেমসেও ৷ দেশবাসীর স্বপ্ন জমাট হচ্ছিল ১৯৬০-এর রোম অলিম্পক ঘিরে৷ কিন্তু ৪০০ মিটার ফাইনালের শেষে মিলখার নামের পাশে ‘ট্র্যাজিক নায়ক’-বিশেষণ ৷ সেকেন্ডের ভগ্নাংশের অমোঘ হিসেবে অধরাই থেকে গেল পদক | পাঞ্জাব সরকারের ক্রীড়া দফতরের অধিকর্তা হয়েছিলেন মিলখা |

মিলখা সিং-র সমাজ-সেবামূলক কাজ (Social works):

১৯৯৯ সালে দত্তক নেন কার্গিল যুদ্ধে নিহত শহিদের ৭ বছর বয়সি এক সন্তানকে ৷ দান করে দিয়েছেন অর্জিত পদক ৷ এখন সে সব সাজানো আছে পাতিয়ালা স্পোর্টস মিউজিয়ামে ৷ ১৯৬০ সালের অলিম্পিক্সে ব্যবহৃত জুতোও তিনি দিয়ে দিয়েছিলেন চ্যারিটি শো-এ ৷ নিজের বায়োপিকের জন্যেও মাত্র ১ টাকা সাম্মানিক নিয়েছিলেন মিলখা ৷ শর্ত দিয়েছিলেন ছবি থেকে লভ্যাংশের বড় অংশ দিতে হবে মিলখা সিং চ্যারিটেবল ট্রাস্টে ৷ যে ট্রাস্টের উদ্দেশ্য দরিদ্র ও অভাবী খেলোয়াড়দের সাহায্য করা ৷

আরও পড়ুন - Corona 3rd Wave: আগামী ৬-৮ সপ্তাহের মধ্যেই দেশে আসছে করোনার তৃতীয় ঢেউ

বাড়ির এক পরিচারকের মাধ্যমে সংক্রমিত হন মিলখা এবং তাঁর স্ত্রী | গত ২০ মে কোভিডে আক্রান্ত হন। কোভিডে আক্রান্ত হওয়ার পর ৩০ দিনের মাথায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করলেন কিংবদন্তি এই দৌড়বিদ। বয়স হয়েছিল ৯১ বছর | স্ত্রী নির্মল কৌর পাঁচ দিন আগে প্রয়াত হন। তিনিও কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন |

নিবন্ধ: রায়না ঘোষ

আরও পড়ুন - PM on 7th international yoga day 2021: আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে বার্তা স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters