(Farmer will get 30 q fertilizer) ত্রিশ কুইন্টাল-এর বেশী সার দেওয়া হবে না কোন কৃষককে, নিষেধাজ্ঞা জারি সরকারের

KJ Staff
KJ Staff
Spraying Fertilizer on crops
Spraying Fertilizer on crops

কেন্দ্রীয় সরকার কৃষকদের ব্ল্যাকে সার বিক্রি করার বিষয়ে বাধা দিয়ে এক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। সরকার থেকে জানানো হচ্ছে যে, ফসলের ফলনে কৃষকদের বৈজ্ঞানিক পরামর্শ নিয়ে সার ব্যবহার করা উচিৎ। এর সাথে সরকারের তরফ থেকে আরও জানানো হয়েছে যে, রবি মরসুম থেকে প্রতি কৃষককে ত্রিশ কুইন্টাল সার সরবরাহ করা হবে। কেন্দ্রীয় সরকার হিমাচল সহ দেশের অন্যান্য রাজ্যে কৃষকদের উপর এই নিয়ম লাগু করেছে। রাজ্যে প্রায় দশ শতাংশ বড় কৃষক রয়েছে এবং তাদের চাষের জন্য অনেক জমি রয়েছে। কৃষকদের প্রয়োজন বিবেচনায় রেখে সার, বিশেষত ইউরিয়া সরবরাহ করা হবে, যাতে সারের অপব্যবহার হ্রাস করা যায়। মরসুমে রাজ্যের কৃষকদের জন্য সর্বোচ্চ ত্রিশ কুইন্টাল সার সরবরাহ করা হবে।

রাজ্যের নব্বই শতাংশ মাঝারি ও ক্ষুদ্র কৃষক রয়েছেন। অনেক কৃষক এমন রয়েছেন যারা বেশি পরিমাণে সার কিনে তারপরে তা বিক্রি করে কালো টাকা উপার্জন করেন। অন্যান্য রাজ্যে এই প্রবণতা বেশ বেশি। এই কারণে, কেন্দ্র সরকার সমস্ত রাজ্যে সার সংগ্রহের উপর একটি নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। রাজ্য কৃষির পরিচালক নরেশ কুমার বাধন জানিয়েছেন যে, এই রবি মরসুম থেকে কৃষকদের সর্বাধিক ত্রিশ কুইন্টাল সার দেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন, কৃষকদের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে যে কেবল মাটি পরীক্ষার উপর ভিত্তি করে তাদের সার ব্যবহার করতে হবে।

বিশেষজ্ঞদের মত অনুযায়ী, দুই বিঘা সেচ প্রাপ্ত জমিতে তিরিশ কেজি সার প্রয়োগ পর্যাপ্ত। কৃষকরা যদি জমিতে বেশি পরিমাণে সার প্রয়োগ করে থাকেন, তবে ফসলের ফলন কম হয়, এমনকি ফসল জ্বলে যাবার সম্ভবনাও থাকে।

Image source - Google

Related link - (New technology in crop cultivation) ফসলের উন্নত ফলনের জন্য এবং সারের খরচ কমাতে ব্যবহার করুন এই চাপান সার

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters