Saffron farming: এবার উত্তরবঙ্গেও শুরু হলো কাশ্মীরি জাফরান চাষ

রায়না ঘোষ
রায়না ঘোষ
Saffron (image credit- Google)
Saffron (image credit- Google)

কাশ্মীরি জাফরানের যেন বঙ্গজাত গন্ধ | বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ দপ্তর। ড্রাগন ফ্রুট (Dragon Fruit) থেকে কাশ্মীরি আপেল অথবা আঙুর ফলেছে এই রাজ্যের মাটিতে। রাঙামাটির মতো এলাকাতেও স্ট্রবেরির ফলন চমকে দিয়েছে। এবার কাশ্মীরের অন্যতম মূল ফসল জাফরান (Saffron) বা লাল সোনাও এবার চাষ করা হবে উত্তরবঙ্গের মাটিতে। মঙ্গলবার মার্চেন্টস চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির বিশেষ সেশনে এমনই জানালেন রাজ্যের খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ ও হর্টিকালচারের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব সুব্রত গুপ্ত।

তিনি জানিয়েছেন, জাফরান চাষকে (Saffron cultivation) গুরুত্ব দিয়েই ভাবা হচ্ছে। খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্পে ই-কমার্সের গুরুত্ব বাড়ছে। ইতিমধ্যেই রাজ্যে মাংস, দুধের মতো কাঁচামালের যথেষ্ট উৎপাদন হচ্ছে। পাশাপাশি, রাজ্যে জাফরান উৎপাদনের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। এদিন তিনি কৃষকদের নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। সুব্রত গুপ্তবাবু জানিয়েছেন, “চাষিরা আমাদের দেশের সব থেকে বড় উদ্যোগপতি। বৃষ্টি, আমদানি-রপ্তানি কিছুই তাঁদের হাতে নেই। তবুও তাঁরা নিয়মিত ফসল ফলিয়ে চলেছেন। ক্রেতা হিসাবে আমাদের উচিত, তাঁদের ন্যায্য মূল্য দেওয়া।” তবে জাফরান চাষের জন্য কাশ্মীরের আবহাওয়া গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয়। বঙ্গে শুধুমাত্র দার্জিলিং বা ডুয়ার্সের চাষ কিছুটা হলেও হতে পারে। সেই পরীক্ষায় নামবে সরকার।

আরও পড়ুন - Group-C recruitment: মিড- ডে- মিল প্রকল্পে গ্রূপ-সি কর্মী নিয়োগ, দেখুন বিস্তারিত তথ্য

রাজ্য খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ দপ্তর সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই চাষিদের প্রশিক্ষণের জন্য তৈরি হয়েছে চুঁচুড়া উৎকর্ষ কেন্দ্র। ওই কেন্দ্রে নিয়মিত কৃষকদের চাষের আগের এবং পরবর্তী বিষয় নিয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এ দিনের আলোচনায় কৃষকদের প্রযুক্তির উপরেও জোর দেওয়ার কথা বলা হয়। রাজ্যে পিঁয়াজ সংরক্ষণে ইতিমধ্যেই গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সেজন্য রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে তৈরি করা হয়েছে পিঁয়াজের হিমঘর।

সুব্রতবাবু ছাড়াও এদিনের সেশনে উপস্থিত ছিলেন মার্চেন্টস চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির প্রেসিডেন্ট আকাশ শাহ এবং এমসিসিআই-এর কাউন্সিল অন এগ্রিকালচার অ্যান্ড প্রসেসিং—এর চেয়ারম্যান সুরেশ আগরওয়াল। এদিন আকাশবাবু বলেন, “গত ২বছরে কোভিড, আমফান ও যশের জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্প।” মূলত চাষ ও কাঁচামাল সরবরাহে সমস্যার জেরেই এই ক্ষতি হয়েছে | তবে, জাফরান চাষের এই উদ্যোগ কৃষকবন্ধুদের জন্য বেশ সহায়ক বলেই আশা করা হচ্ছে |

আরও পড়ুন - Education Supervisor Recruitment: রাজ্যে এডুকেশন সুপারভাইজার নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি, দেখুন বিস্তারিত তথ্য

Like this article?

Hey! I am রায়না ঘোষ . Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters