ড্রোন ব্যবহার করে সরকার নিয়ন্ত্রণ করছে (The locusts) পঙ্গপালের দল

KJ Staff
KJ Staff

পাকিস্তান থেকে, ১১ ই এপ্রিল রাজস্থানের মধ্য দিয়ে পঙ্গপালের ঝাঁক ভারতে প্রবেশ করেছে। বিগত সোমবার, জয়পুর শহরের কয়েকটি আবাসিক এলাকায় এই কীটের দল হানা দেয় এবং সেখানে কৃষিজমির ক্ষতি করে। এরপর রাজস্থান থেকে গুজরাট, মধ্য প্রদেশ, পাঞ্জাব এবং মহারাষ্ট্রে হানা দেয় এই অভিবাসী কীটের দল। সতর্কতা জারি করা হয় দিল্লী, মথুরা, উত্তরপ্রদেশ সহ বেশ কয়েকটি রাজ্যে। পঙ্গপালের আক্রমণে ক্ষতি হয়েছে অনেক কৃষিজমির এবং কৃষকের। কিন্তু খরিফ মরসুমে যাতে এদের দ্বারা কৃষকের আর ক্ষতি না হয় তা নিয়ন্ত্রণের জন্য সরকার তৎপরতা গ্রহণ করেছে। মন্ত্রক জানিয়েছে যে তারা পঙ্গপাল নিয়ন্ত্রণ করতে ড্রোন ব্যবহারের জন্য নাগরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রকের অনুমতি পেয়েছে। কীটনাশক স্প্রে করার জন্য শীঘ্রই ড্রোন স্থাপনের পরিকল্পনা নিয়েছে বলে বুধবার কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রক জানিয়েছে।

যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সংস্থা মাইক্রন থেকে ৬০ টি স্প্রেয়িং মেশিন ক্রয় এবং লম্বা গাছ ও দুর্গম অঞ্চলগুলিতে পঙ্গপালের কার্যকরভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে কীটনাশক স্প্রে করার জন্য দুটি ড্রোন ব্যবহারের সরকার আদেশ দিয়েছে। এটি রাজস্থান, গুজরাট, পাঞ্জাব এবং মধ্য প্রদেশে এখন পর্যন্ত ৪,৩০৮ হেক্টর জমিতে নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে।

বর্তমানে, কীটনাশক স্প্রে করার জন্য জন্য ৮৯ টি ফায়ার ব্রিগেড, ১২০ টি সার্ভে ভেহিকেল, ৪৭ টি স্প্রে সরঞ্জাম সহ নিয়ন্ত্রণকারী যানবাহন এবং ৮১০ টি ট্র্যাক্টর লাগানো স্প্রেয়ার, প্রয়োজন অনুযায়ী বিভিন্ন দিনে কার্যকর পঙ্গপাল নিয়ন্ত্রণের জন্য মোতায়েন করা হয়েছে।

তথ্য অনুযায়ী, ২১ টি মাইক্রোনেয়ার এবং ২৬ টি আলভামাস্ট স্প্রে মেশিন রয়েছে, যা পঙ্গপাল নিয়ন্ত্রণের জন্য ব্যবহৃত হচ্ছে। ইতিমধ্যে নিয়ন্ত্রণ কার্য জোরদার করতে অতিরিক্ত ৫৫ টি যানবাহন মোতায়েন করা হয়েছে। পঙ্গপাল নিয়ন্ত্রণ সংস্থায় পর্যাপ্ত পরিমাণে কীটনাশক ম্যালাথিয়ন বজায় রাখা হয়েছে এবং পঙ্গপালের আক্রমণ রুখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ সম্বন্ধে রাজস্থান, গুজরাট, হরিয়ানা ও পাঞ্জাবকে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

২১ শে মে জারি করা পঙ্গপালের বিষয়ে খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএওও) আপডেট শেয়ার করে মন্ত্রণালয় বলেছে যে, পঙ্গপালের দল একদিনে ৩৫,০০০ জনের মতো খাবার খেতে পারে, অর্থাৎ ভয়াবহ এই পতঙ্গের কৃষিজমিতে আক্রমণে দেশে দেখা দিতে পারে চরম খাদ্যসঙ্কট। জাতিসংঘের বক্তব্য অনুযায়ী, বর্তমান পরিস্থিতি পূর্ব আফ্রিকাতে অত্যন্ত উদ্বেগজনক, এটি খাদ্য সুরক্ষা এবং জীবিকার পক্ষে এক নজিরবিহীন ভীতিপ্রদর্শন।

সূত্র- Deccan Herald

স্বপ্নম সেন

Related link - https://bengali.krishijagran.com/news/the-countrys-worst-locust-attack-high-alert-in-many-states/

https://bengali.krishijagran.com/news/locust-attack-on-indian-agriculture/

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters