আপনিও শুরু করতে পারেন আর্বান ফার্মিং (Urban Farming), জেনে নিন এর খুঁটিনাটি

Thursday, 02 July 2020 03:02 PM

বর্তমান সময়ে শহরে কৃষিকাজ এক বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে গিয়েছে৷ বিভিন্ন স্থানে বড় বড় প্রাসাদোপম বাড়ি, হোটেল, রেস্তোরাঁ, শপিং মল, স্কুল-কলেজ, অফিস, হাসপাতাল৷ আর এসবের মাঝে কৃষিকাজের জন্য ন্যূনতম যে জমির প্রয়োজন তার অভাব দেখা দিয়েছে৷ একদিকে যেমন এই কঠিন পরিস্থিতির উদয় হয়েছে, তেমনই অন্যদিকে এর বিকল্প হিসেবে হু হু করে জনপ্রিয়তা বাড়ছে আর্বান ফার্মিং-এর (Urban Farming).

বিদেশে এই এর প্রচলন বহু আগে থেকেই হয়েছে৷ এবং জনপ্রিয়তাও তুঙ্গে৷ আর ভারতে বিভিন্ন শহরে এখন এই আর্বান ফার্মিং-এর কদর বেড়েছে৷ বিভিন্নভাবে এই ফার্মিং করা যায়৷ তবে তার আগে জেনে নিতে হবে এটি কী, এর জন্য কী কী প্রয়োজন৷ আর এই সমস্ত ধারণা তুলে ধরা হল এই প্রতিবেদনে৷

আর্বান ফার্মিং (Urban Farming) আসলে কী?

শহরে নিজের ফ্ল্যাট, বাড়ি, অ্যাপার্টমেন্টে সবজি, ফল, হার্বস-এর ফলনের এই পদ্ধতিই হল আর্বান ফার্মিং৷ এই পদ্ধতিতে আপনি ছাদে, ব্যালকনি, খোলা বারান্দা, বিভিন্ন স্থানে স্বল্প পরিসরে চাষ করতে পারেন৷ রাসায়নিক মুক্ত এই আর্বান ফার্মিং ক্রমশই বিস্তার লাভ করছে৷ ছোট থেকে বড় পাত্রে, অথবা ছাদে মাটির বেড বা বিছানা করে চাষ করা যেতে পারে৷

বর্তমান সময়ে দেশে খাদ্যের নিরাপত্তা একটি বড় প্রশ্নের মুখে এসে দাঁড়িয়েছে৷ কীটনাশক, রাসায়নিক সার, অ্যান্টিবায়োটিক প্রভৃতি বিভিন্ন জিনিসের প্রভাবে খাদ্যের প্রাকৃতিক গুনমান নষ্ট হতে বসেছে৷ যা আমাদের শরীরের পক্ষেও ক্ষতিকারক৷ কিন্তু আর্বান ফার্মিং যেহেতু নিজে হাতে নিজের মতো করে করা যায়৷ চাহিদা অনুযায়ী স্বল্প পরিসরে চাষ করে প্রয়োজনীয়তা মেটানো যায়, এবং সেই সঙ্গে রাসায়নিক সার, কীটনাশককেও এড়ানো যায় বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, তাই এই চাষ পদ্ধতি ক্রমশই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে৷ পশ্চিমবঙ্গে, বিশেষ করে কলকাতায় আর্বান ফার্মিং-এর (Urban Farming) চাহিদা বাড়ছে উত্তরোত্তর৷

ছাদে কৃষিকাজ (Terrace Farming)

আপনার বাড়ি হোক বা ফ্ল্যাট, ছাদে চাষ করার সুযোগ থাকলে আপনি অনায়াসেই আর্বান ফার্মিং করতে পারবেন৷ ছাদে ড্রাম, টব, বা মাটির বেড করে সবজি থেকে শুরু করে ফল, ফুল, ঔষধি গাছ চাষ করতে পারেন৷

ব্যালকনিতে কৃষিকাজ (Balcony Farming)

ছাদে চাষের সুযোগ না থাকলে স্বল্প পরিসরে ব্যালকনিতেও চাহিদা অনুযায়ী গাছ লাগাতে পারেন৷ ছোট ছোট টবে গাঁদা, মর্নিং গ্লোরির মতো ফুল, অথবা লেমনগ্রাস, তুলসী, পুদিনা, ধনে পাতার চাষ করতে পারেন৷ এদের পরিচর্যায় খুব বেশি পরিশ্রম হয় না৷ এমনকি টমেটো থেকে আদা, রসুন, লেবু, লঙ্কার চাষও করতে পারেন ব্যালকনিতেই৷ তবে সবক্ষেত্রেই নজর রাখতে হবে টবে জল যেন না জমে যায়৷ আর আর্বান ফার্মিং-এর অন্যতম সুবিধা হল ঝড়, প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের হাত থেকে গাছগুলি রক্ষা করা সহজ হয়৷

উল্লম্ব কৃষিকাজ (Vertical Farming)

উল্লম্ব বাগান তৈরি করে কৃষকাজ করা যেতে পারে যা ভার্টিকাল ফার্মিং বা ভার্টিকাল গার্ডেনিং নামে পরিচিত৷ এতে দেওয়ালে স্টিল, কাঠ, লোহা প্রভৃতির কাঠামো তৈরি করে টব ঝুলিয়ে ফল, ফুল, সবজি চাষ করা যেতে পারে৷ স্থান এবং খরচের ওপর এই ভার্টিকাল ফার্মিং নির্ভর করছে অনেকটাই৷ কেউ চাইলে সিমেন্ট দিয়ে দেওয়ালে উল্লম্ব স্থায়ী ফ্রেম-ও তৈরি করে চাষ করতে পারেন৷ উন্নত মাটি, জল প্রদান, আলো-বাতাস, এইসবের দিকে খেয়াল তো রাখতেই হবে, তবে উল্লম্ব কৃষিকাজ খুব বেশি পরিশ্রম সাধ্য নয়৷ তাই উত্তরোত্তর চাহিদা বাড়ছে আর্বান ফার্মিং-এর৷

 

আরও পড়ুন- ‘উল্লম্ব বাগান’: (Vertical Gardening) এক চিলতে সবুজের খোঁজে

বাড়িতে টবেই হবে পুদিনার গাছ (Spearmint Farming), কীভাবে করবেন জেনে নিন

English Summary: Benefits of urban farming

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.