১৫০০০ টাকা বিনিয়োগে এই ঔষধি উদ্ভিদের চাষ করে উপার্জন করুন ৪ লক্ষ পর্যন্ত টাকা

Saturday, 27 February 2021 11:57 PM
Medicinal Herb Tulsi (Image Source - Google)

Medicinal Herb Tulsi (Image Source - Google)

কৃষকদের জন্য ফার্মাকোলজিকাল বা ঔষধি উদ্ভিদের চাষ খুব উপকারী। ভারতের অনেক রাজ্যের কৃষকরা  ঔষধি উদ্ভিদ চাষ করে ভাল উপার্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। তুলসীর মতো ঔষধি গাছের আবাদের সুবিধা হ'ল, এর চাষে স্বল্প সময় এবং কম খরচে ভাল লাভ করা যায়। মাত্র ৩ মাসে ১৫,০০০ থেকে ২০,০০০ টাকা বিনিয়োগ করে আপনি ৩-৪ লক্ষ টাকা উপার্জন করতে পারবেন। সুতরাং, এটি অর্থ উপার্জনের একটি দুর্দান্ত উপায়।

মৃত্তিকা (Soil) -

উন্নত অভ্যন্তরীণ নিকাশযুক্ত সমৃদ্ধ বেলে দোআঁশ মাটি এই উদ্ভিদের চাষের জন্য উপযুক্ত। উচ্চ ক্ষারীয়, লবণাক্ত এবং জলাবদ্ধ জমি একেবারেই এর জন্য অনুপযুক্ত। ভাল জৈব পদার্থযুক্ত মাটিতে এই উদ্ভিদের দ্রুত বৃদ্ধি হয়। মাটির পিএইচ ৫.৫-৭ এর বিকাশের জন্য আদর্শ।

চাষের জমি প্রস্তুতি (Land Preparation) –

তুলসীর আবাদ করার জন্য, শুকানো মাটি প্রয়োজন। জমিতে ভালো করে লাঙল দিয়ে কর্ষণের পরে এফওয়াইএম ভালভাবে মাটিতে মেশাতে হবে। তুলসীর প্রতিস্থাপন সূক্ষ্ম বীজতলায় করা হয়।

বপনের সময় –

ফেব্রুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে নার্সারি বেড প্রস্তুত করতে হবে।

বীজ বপন -

এর বৃদ্ধির জন্যে ৪.৫ x ১.০ x ০.২ মিটার আকারের বীজতলা তৈরি করুন। ২ সেমি গভীরতায় এবং ৬০ সেমি. দূরত্বে বীজ বপন করতে হবে। বীজ বপনের ৬-৭ সপ্তাহ পরে জমিতে ফসল রোপণ করা হয়। তুলসী আবাদে একর প্রতি ১২০ গ্রাম হারে বীজ ব্যবহার করুন। বীজ বপন করার আগে মাটিবাহিত রোগ ও পোকার হাত থেকে ফসল রক্ষার জন্য মানকোজেব ৫ গ্রাম/কেজি প্রয়োগ করতে হবে।

নার্সারি ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড ট্রান্সপ্ল্যান্টিং -

বপনের আগে ভাল ফলনের জন্য মাটিতে ১৫ টন এফওয়াইএম মিশিয়ে নিন। সুবিধাজনক জায়গা সহ প্রস্তুত বেডে তুলসী বীজ বপন করুন। বর্ষার  8 সপ্তাহ আগে বেডে বীজ বপন করা হয়। বীজগুলি ২ সেমি গভীরতায় বপনের পরে, এফওয়াইএম এবং শুকনো মাটির স্তর বীজের উপরে ছড়িয়ে দিন। স্প্রিঙ্কলার সেচ প্রদান করতে হবে।

চারা রোপণের ১৫-২০ দিন আগে প্রতিস্থাপনের জন্য ২% ইউরিয়া দ্রবণ প্রয়োগ করলে স্বাস্থ্যকর চারা উৎপন্ন হবে। রোপণ এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ে করা হয় যখন চারাগুলি ৬ সপ্তাহের হয় এবং চারাগুলিতে ৪-৫ টি পাতা থাকে।

সারের প্রয়োজনীয়তা (কেজি/একর) -

ইউরিয়া এসএসপি মিউরেট অফ পটাশ
১০৪ ১৫০ ৪০

পুষ্টির প্রয়োজনীয়তা (কেজি/একর) -

নাইট্রোজেন ফসফরাস পটাশ
৪৮ ২৪ ২৪

জমি প্রস্তুতির সময়, এফওয়াইএম অর্থাৎ ফার্মমিয়ার সার মাটির সাথে ভালভাবে মিশিয়ে প্রয়োগ করুন এবং ইউরিয়া ১০৪ কেজি, মি.অ.প ৪০ কেজি এবং এসএসপি  1 কেজি / একর হারে নাইট্রোজেন ৪৮ কেজি এবং পটাশ ২৪ কেজি এবং ফসফরাস ২৪ কেজি / একর হারে প্রয়োগ করতে হবে। নাইট্রোজেনের অর্ধেক ডোজ এবং ফসফেট পেন্টক্সাইডের সম্পূর্ণ ডোজ প্রতিস্থাপনের সময় প্রয়োগ করুন। নাইট্রোজেনের অবশিষ্ট ডোজ বিভক্তভাবে ২ টি ভাগে প্রয়োগ করা হয়।

ব্যয়ের পরিমাণ -

তুলসী চাষ শুরু করার জন্য আপনার বিপুল পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন হবে না। এক হেক্টরের জন্য প্রায় ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকার বিনিয়োগ প্রয়োজন, তবে আগাছা, সেচ ইত্যাদির খরচ ভিন্ন।

আয়ের পরিমাণ -

তুলসীর উদ্ভিদ থেকে দু ধরণের পণ্য পাওয়া যায়, বীজ এবং পাতা। যদি তুলসীর বীজ সরাসরি বাজারে বিক্রি করা যায়, তবে বীজের দাম প্রতি কেজি প্রায় দেড়শ থেকে ২০০ টাকা এবং এর তেলের দাম প্রতি কেজি প্রায় ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা। সুতরাং, এই উদ্ভিদের চাষ করে সহজেই লক্ষাধিক আপনি উপার্জন করতে পারবেন।

আরও পড়ুন - কৃষকদের জন্য সুখবর! কিষাণ ক্রেডিট কার্ডের আওতায় অর্থের পরিমাণ বাড়াল সরকার (Govt Has Increased Amount Under KCC)

English Summary: Profitable cultivation method of medicinal plant Tulsi

আপনার সমর্থন প্রদর্শন করুন

প্রিয় অনুগ্রাহক, আমাদের পাঠক হওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার মতো পাঠকরা আমাদের কৃষি সাংবাদিকতা অগ্রগমনের অনুপ্রেরণা। গ্রামীণ ভারতের প্রতিটি কোণে কৃষক এবং অন্যান্য সকলের কাছে মানসম্পন্ন কৃষি সংবাদ বিতরণের জন্যে আমাদের আপনার সমর্থন দরকার। আপনার প্রতিটি অবদান আমাদের ভবিষ্যতের জন্য মূল্যবান।

এখনই অবদান রাখুন (Contribute Now)

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.