ডুয়ার্সে চিতাবাঘের দেহ উদ্ধার! দুর্ঘটনায় মৃত্যু নাকি রয়েছে অন্য কারণ?

 রুপালী দাস
রুপালী দাস
IMAGE SOURCE- GOOGLE

ফের মর্মান্তিক মৃত্যু চিতাবাঘের। রাস্তার পাশেই মিলল রক্তাক্ত দেহ। পেটে গভীর ক্ষত। দেহটি দেখেই বোঝা যায় ভারী কিছুর ধাক্কায় ক্ষত বিক্ষত হয়েছে পেটের একাংশ। সকাল সকাল এই মর্মান্তিক দৃশ্য  দেখা গেল ডুয়ার্সে। এদিন সকালে শ্রমিকরা কাজে যাওয়ার সময় নজর আসে এই দৃশ্য।  শ্রমিকরা এদিন কাজে যাওয়ার সময় ডুয়ার্সের তোতাপাড়া থেকে জালাপাড়াগামী রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখেন চিতাবাঘের দেহ। নিমিশের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।

সেই কর্মীরা বিন্নাগুড়ি বন্যপ্রাণী স্কোয়ারে কর্মীদের খবর দেন। খবর পেতেই ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছান বনদফতরের কর্মীরা। তাঁদের প্রাথমিক অনুমান কোনও গাড়ির ধাক্কায় মৃত্যু হয়েছে চিতাবাঘটির। বনদফতর সূত্রে খবর, এটি একটি অপ্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ চিতাবাঘ। ইতিমধ্যেই চিতাবাঘের মৃতদেহটি লাটাগুড়ি প্রকৃতি পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানেই ময়নাতদন্ত হবে বলে জানিয়েছে বনদফতর। এদিকে চিতাবাঘের মৃত্যুর খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে প্রচুর ভিড় জমে স্থানীয়দের।

আরও পড়ুনঃ  গ্রামে বসবাস করে এই ৩ টি কৃষি ব্যবসা শুরু করুন, কম সময়ে বেশি অর্থ উপার্জন করবেন

এই ঘটনা প্রসঙ্গে বনকর্তা বলেন, “ রাস্তা পার হওয়ার সময় হয়ত গাড়ির ধাক্কায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। পেটে গভীর ক্ষত দেখেই বোঝা যাচ্ছে কোনও ভারী বস্তুর সঙ্গে ধাক্কা হয়েছে। বাকি বিষয় ময়নাতদন্তের পর বলা যাবে।

প্রসঙ্গত, গত ফেব্রুয়ারি মাসে ডুয়ার্সে জলঢাকা নদী সংলগ্ন জঙ্গলে একটি চিতাবাঘের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। বন বিভাগের কর্মীরা জঙ্গল টহলদারির সময় তাঁদের নজরে আসে মৃত চিতাবাঘের দেহ। বন বিভাগের কর্মীদের মতে হাতির হামলায় মৃত্যু হয়েছিল ওই চিতাবাঘের।

আরও পড়ুনঃ  পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে বিলুপ্ত প্রায় সামুদ্রিক কচ্ছপ

Published On: 08 April 2022, 11:47 AM English Summary: Leopard body rescued in Dwars! Is there any other cause of death in the accident?

Like this article?

Hey! I am রুপালী দাস. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters