(Cultivating bamboo) বাঁশের চাষ করে আয় করুন সাড়ে তিন লাখ পর্যন্ত টাকা

Friday, 18 September 2020 05:01 PM
Bamboo tree

Bamboo tree

মোদী সরকার দেশের কৃষক ও অভিবাসীদের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প পরিচালনা করছেন। National Bamboo Mission-ও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এর আওতায় বাঁশ চাষ করে কৃষকরা লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করতে পারবেন। কারণ কৃষকরা যদি রাষ্ট্রীয় বাঁশ মিশনের আওতায় বাঁশ চাষ করেন, তবে সরকারের কাছ থেকে আপনাকে প্রতি গাছের জন্য ১২০ টাকা দেওয়া হবে। তাহলে আসুন জেনে নিন যে, আপনি কীভাবে এই মিশনের অধীনে বাঁশ চাষ শুরু করতে পারেন।

২০১৮ সালে মোদী সরকার উদ্ভিদ বিভাগ থেকে বাঁশকে অপসারণ করে। এমন পরিস্থিতিতে কোনও বাধা ছাড়াই বাঁশ চাষ করা যায়। তবে এটি কেবল ব্যক্তিগত জমির জন্যই করা যেতে পারে। বনভূমিতে যদি বাঁশ থাকে তবে তার উপর এই ছাড় দেওয়া হবে না, কারণ সেখানে বন আইন প্রযোজ্য।

প্রথমে বাঁশের প্রকার বেছে নিন -

বাঁশের প্রায় ১৩৬ টি প্রজাতি রয়েছে, যা বিভিন্ন উদ্দেশ্যে ব্যবহৃত হয়। এর মধ্যে প্রায় ১০ টি জাত সর্বাধিক ব্যবহৃত হয়। আপনি কীসের জন্য বাঁশ চাষ করতে চান তা বিবেচনা করে আপনাকে প্রজাতিগুলি বাছাই করতে হবে। আপনি যদি আসবাবের জন্য বাঁশ চাষ করছেন, তবে এর সাথে সম্পর্কিত প্রজাতিগুলি বাছাই করুন।

বাঁশ চাষ সম্পূর্ণ হতে কত সময় লাগে?

এর চাষে ৩ থেকে ৪ বছরে বাঁশ প্রস্তুত হয়। চতুর্থ বছর থেকে ফসল সংগ্রহ শুরু করা উচিত। বাঁশ গাছের চারা ৩ - ৪ মিটার দূরত্বে রোপণ করা হয়, যাতে এর মধ্যে অন্যান্য ফসল সহজেই চাষ করা যায়। বিশেষ বিষয়টি হ'ল এর পাতা চরাঞ্চলে প্রাণীদের খাওয়ানো হয়। কৃষকরা যদি বাঁশ চাষ করেন তবে পরিবেশও নিরাপদ থাকবে। এ থেকে তৈরি আসবাবের চাহিদাও বেশি, তাই আপনি এর চাষ থেকে ভাল লাভ করতে পারেন। কৃষকরা প্রয়োজন এবং প্রজাতি অনুযায়ী এক হেক্টরে প্রায় ১৫০০ থেকে ২৫০০ চারা রোপণ করতে পারেন।

Profitable bamboo cultivation

Profitable bamboo cultivation

বাঁশ চাষে সরকারি সহায়তা -

যদি আমরা বাঁশ চাষের ব্যয়ের কথা বলি, তবে ৩ বছরে গড়ে প্রতি গাছের জন্য ২৪০ টাকা আসবে। এর মধ্যে প্রতি উদ্ভিদে ১২০ টাকা করে সরকারী সহায়তা দেওয়া হবে। এর আবাদে, ৫০ শতাংশ খরচ সরকার বহন করবে এবং বাকি ৫০ শতাংশ কৃষককে দিতে হবে। এ জন্য জেলার নোডাল অফিসারের কাছ থেকে সম্পূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে।

বাঁশ থেকে কী তৈরি করা যায়?

১) কন্সট্রাকশনের কাজে ব্যবহৃত হয়।

২) বাঁশের সহায়তায় একটি বাড়ি তৈরি করা যেতে পারে।

৩) আসবাব তৈরি করে উপার্জন করা যায়।

৪) হস্তশিল্প এবং গহনা তৈরি করে লাভ করতে পারেন।

৫) সাইকেলও তৈরি করা যায়।

৬) বাঁশের তৈরি জলের বোতলও ভালো মূল্যে বিক্রয় হয়।

লাভের পরিমাণ -

কৃষক যদি ৩ x ২.৫ মিটারে একটি উদ্ভিদ রোপণ করেন, তবে এক হেক্টরে প্রায় ১৫০০ উদ্ভিদ রোপণ করতে পারবেন। আর বিশেষ বিষয় হল, এই উদ্ভিদ প্রতিবছর প্রতিস্থাপনের কোনও প্রয়োজন হবে না, কারণ বাঁশের গাছ প্রায় ৪০ বছর ধরে স্থায়ী হয়। এটির সাহায্যে, আপনি ২ টি গাছের মধ্যে অবশিষ্ট জায়গাতে অন্যান্য ফসল চাষ করতে পারবেন। এইভাবে চাষ করে, ৪ বছর পরে, আপনি প্রায় ৩ থেকে সাড়ে তিন লাখ টাকা লাভ করতে পারবেন।

Image source - Google

Related link - (Water conservation) সাম্প্রতিক অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে জল সংরক্ষণের প্রয়োজনীয়তা ও তার উপায়

(Straw treated with urea) গবাদি পশুর উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য ইউরিয়া দিয়ে উপচার করা খড়ের ব্যবহার

English Summary: Make up to three and a half lakh rupees by cultivating bamboo

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.