বর্ষা ২০২০: দক্ষিণ পশ্চিম বর্ষার প্রভাবে রাজ্য জুড়ে ৪৮ ঘন্টা পর্যন্ত বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস আবহাওয়া দফতরের (IMD)

KJ Staff
KJ Staff

রবিবার ভারত আবহাওয়া অধিদফতর (IMD) ওড়িশা, উত্তর উপকূলীয় অন্ধ্র প্রদেশ, তেলেঙ্গানা, মহারাষ্ট্রের বিদর্ভ অঞ্চল, গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ, এবং গুজরাটে ৯ ই জুন থেকে ১১ ই জুনের মধ্যে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে।

৪৮ ঘন্টা পর্যন্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস -

আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, পরবর্তী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে পূর্ব মধ্য বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ অঞ্চলটি বিকাশের সম্ভাবনা রয়েছে। "সম্ভবত এই নিম্নচাপটি ঘনীভূত হয়ে পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে। পরবর্তী ২৪ ঘন্টার মধ্যে এই নিম্নচাপটিকে আরও চিহ্নিত করা যাবে," বলে তারা জানিয়েছেন।

(বর্ষা ২০২০) 'আইএমডির টুইট বার্তা অনুযায়ী জানা গেছে, এই নিম্নচাপের প্রভাবেই, রাজ্য জুড়ে বজ্র বিদ্যুৎ সহ ভারী থেকে অতি ভারী বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে ৯-১১ ই জুন পর্যন্ত। ওড়িশা, উত্তর উপকূলীয় অন্ধ্র প্রদেশ, তেলেঙ্গানায় ৯-১০ ই জুন এবং সম্ভবত ১০-১১ ই জুনের মধ্যে বিদর্ভ, গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ, গুজরাট রাজ্যে বিচ্ছিন্ন ভারী বৃষ্টিপাত হতে চলেছে।

তবে কাল রাজ্যে বিকেল থেকেই শুরু হয়েছে বৃষ্টিপাত। সকালে প্রথমের দিকে আকাশে রোদ দেখা গেলেও, দুপুর থেকেই আকাশ আংশিক মেঘলা হতে শুরু করে, দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে এখনও জল জমে রয়েছে। আমফানের প্রভাবে সুন্দরবন মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত। এর মধ্যেই আবার বৃষ্টিপাত, এতে রাজ্যের অনেক মানুষ গরম থেকে স্বস্তি পেলেও যারা ঝড়ের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিলেন তারা এই ঝড় বৃষ্টিতে নাজেহাল। কারণ দফায় দফায় ত্রাণ পৌঁছালেও সবাই এখনও তা পান নি। তাই আবহাওয়া দফতরের আগামী ৪৮ ঘণ্টার বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাসে চিন্তায় পড়েছেন তারা। ৯ ই জুন থেকে বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস থাকলেও দিল্লী, ওড়িশা এবং পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলায় কাল থেকে হালকা বৃষ্টিপাত পরিলক্ষিত হয়েছে।

গতকাল এই জায়গাগুলিতে বজ্রপাতসহ বৃষ্টি হয়েছে –

গতকাল, উপ-হিমালয় পশ্চিমবঙ্গ, সিকিম, উপকূলীয় অন্ধ্র প্রদেশ, কোঙ্কান, গোয়া এবং তামিলনাড়ু পুডুচেরি ও কারাইকালালের কয়েকটি স্থানে সর্বাধিক তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে (১.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস থেকে ৩.০ ডিগ্রী সেলসিয়াস) কিছুটা উপরে ছিল।

গতকালের রিপোর্ট অনুসারে, উপকূলীয় কর্ণাটক, লাক্ষাদ্বীপ এবং গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ, কেরল ও মাহে, কোঙ্কান ও গোয়া, সৌরাষ্ট্র ও কছ, হরিয়ানা, চণ্ডীগড় ও দিল্লি, পশ্চিম উত্তর প্রদেশ, নাগাল্যান্ড, মণিপুর, মিজোরাম ও ত্রিপুরা, ওড়িশা, তেলঙ্গানা, মধ্যপ্রদেশ, পূর্ব উত্তর প্রদেশ, গুজরাট অঞ্চল, মধ্য মহারাষ্ট্র, ঝাড়খণ্ড, আসাম ও মেঘালয়, দক্ষিণ অভ্যন্তর কর্ণাটক এবং তামিলনাড়ু, পুডুচেরি ও করাইকাল এবং আন্দামান নিকোবর দ্বীপে গতকাল হালকা থেকে ভারী বজ্র বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাত লক্ষ্য করা গেছে।

Related Link - 

সুপার সাইক্লোন আমফানের (Amphan-hit areas) ক্ষতিপূরণ বাবদ রাজ্যের আবেদন এখন ৮০ হাজার কোটি টাকা

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters