ধান চাষ থেকে অধিক লাভ পেতে কোন জাতের বীজের বপন (seed varieties) করা উচিৎ?

KJ Staff
KJ Staff

যেকোনো চাষের ক্ষেত্রে সঠিক প্রজাতি এবং গুনমানের বীজ নির্বাচন করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিভিন্ন ফসলের বীজের নির্বাচনের ক্ষেত্রে প্রজাতিটির ফলন, গুনমান এবং ফসলের বাজারের গ্রহণযোগ্যটা বিশেষ ভূমিকা গ্রহণ করে থাকে। তবে কৃষকরা সচরাচর নতুন প্রজাতির বীজের প্রতি আগ্রহ দেখায় এটা ভেবে যে নতুন প্রজাতির বীজ মানেই উচ্চ ফলনশীল। যদিও কোন ধানের নতুন প্রজাতি  উচ্চ ফলন ছারাও অন্যান্য কারণের ভিত্তিতে তৈরি করা হতে পারে যেমন – শস্যের ভালো গুণগতমান, কীটপতঙ্গ ও রোগের উন্নত প্রতিরোধ ক্ষমতা, ঠান্ডা বা খরার প্রতি উচ্চ সহনশীলতা ইত্যাদি। কোন নির্দিষ্ট অঞ্চলে সর্বাধিক সম্পাদনকারী ধানের জাত সম্পর্কে সঠিক ভাবে অবগত হতে কৃষকের তার অঞ্চলের কৃষি প্রযুক্তিবিদের সাথে পরামর্শ করা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।

ধানের প্রজাতি নির্বাচন করার জন্য যে সমস্ত বিষয়গুলির উপর নজর রাখা উচিৎ -

  • স্থানীয় জলবায়ু অবস্থার সাথে বীজের প্রজাতির অভিযোজনযোগ্যতা। আপনি যে জাতগুলি রোপণ করার কথা ভাবছেন সেগুলি অবশ্যই স্থানীয় জলবায়ুর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়া উচিৎ। সেচযুক্ত নিম্নভূমি, বৃষ্টিপাতযুক্ত নিম্নভূমি, শীতল-উচ্চভূমি যুক্ত অঞ্চল, লবণাক্ত প্রবণ অঞ্চল এবং উঁচু জমি জন্য উপযুক্ত বিভিন্ন প্রজাতির ধানের বীজ রয়েছে। ভালো ফলন পেতে হলে বীজের প্রজাতি নির্বাচনের ক্ষেত্রে এই সমস্ত বিষয় বিবেচনা করা উচিৎ।
  • পরিপক্কতা বা ফলনের সময়কাল। সংক্ষিপ্ত পরিপক্ক সময়কালের ধানের প্রজাতির ক্ষেত্রে কীটপতঙ্গ এবং ঘূর্ণিঝড়ের প্রকোপ থেকে ফসলকে রক্ষা করা সহজ হয়। এছাড়াও এই ধরণের প্রজাতির ব্যবহার কৃষককে বছরে দুই বা ততোধিক ফসল চাষ করার সুযোগ করে দেয়, যা জমি থেকে আজ বাড়তে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা গ্রহণ করতে পারে। তবে দীর্ঘমেয়াদী উন্নত ধানের প্রজাতি সাধারণত বেশী ফলন দিয়ে থাকে।
  • খরা সহনশীলতা যুক্ত প্রজাতি। যে জাতগুলি কিছু সময়ের জন্য শুকনো অবস্থার মধ্যে থেকেও ফলনের ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করতে পারে সেগুলি কম বৃষ্টিপাত যুক্ত বা বিলম্বিত সেচ যুক্ত অঞ্চলে বা অবস্থায় কার্যকরী হতে পারে। বৃষ্টিযুক্ত উঁচু অঞ্চলের জমির জন্য তৈরি করা ধানের প্রজাতির মধ্যেও কিছু পরিমানে খরা সহনশীলতা থাকে। এরকম কিছু বর্তমান প্রজাতি হল DRR 42, DRR 44 and MTU 1001.
  • কীটপতঙ্গের প্রতি সহিষ্ণুতা। আপনার অঞ্চলের সাধারণ কীটগুলি প্রতিরোধী এমন ধানের জাতগুলি ব্যবহার করা উচিৎ। যেমন Arize AZ 8433DT বাদামী শোষক পোকা এবং ব্যাকটেরিয়া জনিত ঝলসা রোগ প্রতিরোধী প্রজাতি
  • সমস্যাযুক্ত মাটির সহনশীলতা যুক্ত প্রজাতি। এমন বিভিন্ন ধানের জাত রয়েছে যেগুলি লবণাক্ত মাটি, দস্তা-ঘাটতিযুক্ত মাটি, ফসফরাস এবং আয়রনের ঘাটতিযুক্ত মাটি, অতিরিক্ত ম্যাঙ্গানিজ এবং অ্যালুমিনিয়াম যুক্ত মৃত্তিকার মতো প্রতিকূল মাটির পরিস্থিতিতেও ভালো ফলন দিতে পারে। তাই ধানের প্রজাতি নির্বাচন করার আগে জমির মাটির পরীক্ষা করে নেওয়া উচিৎ।
  • গাছের পতন প্রতিরোধী প্রজাতি। ধান গাছের নেতিয়ে পরা বা শুয়ে পড়াকে প্রভাবিত করার কারণগুলি হ'ল: উদ্ভিদের উচ্চতা, সূর্যালোকের তীব্রতা, গাছেদের মধ্যে ব্যবধান, মাটিতে উর্বরতার পরিমাণ, চারা প্রতিস্থাপনের পদ্ধতি, বায়ুর বেগ এবং বৃষ্টিপাত, ধানের গোছের পুরুত্ত, কান্ডের ঘনত্ব এবং মূলের কাঠামো ইত্যাদি। এই সমস্ত সমস্যা প্রতিরোধী কিছু প্রজাতি পাওয়া যায় যেমন IR8, PSB Rc2, PSB Rc30, PSB Rc34, এবং PSB Rc74 ইত্যাদি।
  • জল ডুবে থাকা থেকে সহনশীলতা যুক্ত প্রজাতি। একটানা অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের ফলে ১০-১২ দিন জমি জলমগ্ন থাকলে এই বৈশিষ্ট্যযুক্ত ধানের প্রজাতিগুলি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারে। নিচু এবং বন্যা প্রবন অঞ্চলে এই প্রজাটির বীজ ব্যাবহার করা উচিৎ, যেমন – Bina dhan 11, Swarna sub 1 , CR 1009 sub 1 ইত্যাদি

এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে যে আপনি যে প্রজাতির ধানের বীজ নির্বাচন করবেন তার মধ্যে উপরিউক্ত সবকয়টি বৈশিষ্ট্য নাও থাকতে পারে। আপনার নির্দিষ্ট এলাকার প্রয়োজন মেটাতে এবং সমস্যার সমাধান করতে সক্ষম এমন বৈশিষ্ট্য যুক্ত জাতগুলিই নির্বাচন করা উচিৎ।

একযোগে রোপণ অনুশীলন করে আপনার খামারে কীটপতঙ্গ সমস্যা হ্রাস করুন। এর অর্থ হল আপনার এবং আপনার প্রতিবেশী কৃষকদের (কমপক্ষে পাশাপাশি অবস্থিত 20-হেক্টর কৃষি জমি) একটি নিদিষ্ট মাসের নির্দিষ্ট সময়কালের (১৫-২০ দিনের) মধ্যে ধানের ফসল রোপণ করতে হবে।

আপনার ফার্মের বা কৃষিজমির জন্য উপযোগী শংসাপত্রযুক্ত বীজ বা উন্নত জাতের ভাল বীজ রোপণ করুন। নজর রাখতে হবে যেন প্রত্যয়িত বা শংসাপত্রযুক্ত বীজগুলি খাঁটি, পরিষ্কার, পূর্ণ, আকারে অভিন্ন এবং তাদের নূন্যতম অঙ্কুরোদগমের হার ৮৫% থাকে। প্রত্যয়িত বীজের ব্যবহারের ফলে চারাগুলি স্বাস্থ্যকর হয়, তাদের বৃদ্ধি দ্রুত এবং অভিন্ন হয় যা জমির সর্বোপরি ফলন ৫-১০% বৃদ্ধি করতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখতে পারে। মনে রাখবেন যে স্বাস্থ্যকর চারাগুলিতে বেশি শিকড় থাকে, দ্রুত বৃদ্ধি পায় এবং দুর্বল মানের চারাগুলির চেয়ে বেশি গোছা উৎপাদন করে। সুতরাং, প্রত্যয়িত / ভাল বীজ উচ্চ ফলন নিশ্চিত করে।

সৈকত মান্না

Related Link - 

বাসমতী ১৬৩৭, কৃষককে দেবে ধান চাষে দ্বিগুণ (Double The Income Of Farmers) আয়

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters