Rural business - সুস্বাদু পার্শে মাছের বাণিজ্যিক চাষ করে গ্রামীণ যুবকরা আয় করতে পারেন দ্বিগুণ অর্থ

Wednesday, 19 May 2021 11:28 PM
Fish farming (Image Credit - Google)

Fish farming (Image Credit - Google)

পার্শে মাছ অতি সুস্বাদু। অভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিক বাজারে এ মাছের চাহিদা রয়েছে। অগভীর উপকূলীয় জলাশয়, খাড়ি অঞ্চলে এবং মোহনা সংলগ্ন নদীতে মাছ পাওয়া যায়। সাধারন নাম মালেট। চলতি কথায় অনেকে ‘তারই মাছ’ বলে থাকেন। ভাল বাংলায় পার্শে মাছ বলা হয়। ঈষৎ নোনাজলের মিশ্রচাষের জন্য এই মালেট একটি অন্যতম মাছ।

স্বাদে অতুলনীয়, বাজারে ভালোই চাহিদা রয়েছে এই মাছটির। খুব প্রাচীন সময় থেকে পার্শে মাছ উল্লেখ আছে বিভিন্ন দেশে। পাওয়া যায় আমাদের এখানেও। তবে পার্শে মাছের চিরাচরিত পদ্ধতিতে ধরেই পাওয়া যায়। নদী মোহনা থেকে  প্রাকৃতিক উপায়ে পার্শে চারা পাওয়া যায়। তবে মৎস্য বৈজ্ঞানিকদের পার্শে মাছের কৃত্রিম প্রজননের চেষ্টায় বানিজ্যিক চাষের সম্ভবনা আরো বৃদ্ধি পাচ্ছে। এখন পার্শে মাছ যেমন নদী থেকে ধরে পাওয়া যায় তেমনি পার্শে মাছের চাষও বৃদ্ধি পাচ্ছে।  

বিভিন্ন দেশে প্রথাগত বিভিন্ন চাষ পদ্ধতিতে পার্শে মাছের চাষ হয়।

এই প্রথাগত পার্শে মাছের চাষ পদ্ধতি কি রকম (Fish farming procedure) ?

যেমন ইতালিতে ‘ভাল্লিকালচার’ করা হয়। ‘ভাল্লিকালচার’ একটি প্রাচীন মাছ চাষের পদ্ধতি। পার্শে মাছ হল ‘ক্যাটাড্রোমাস ফিস’ অর্থাৎ এটি পরিযায়ী মাছ। সমুদ্রের জোয়ারের জলকে বদ্ধ জায়গায় ভরে নেওয়া হয়। তার মধ্যেই পার্শের মতো বিভিন্ন পরিযায়ী মাছের বাচ্চা চলে আসে। জোয়ারের জল ফিরে যাওয়ার সময় পার্শে মাছের চারা আটকে রেখে তাকেই লালন পালন করে বড় করা হয়। সমুদ্রের জল ঘিরে এই প্রাচীন পদ্ধতির এখনও হয় ইতালিতে। তবে এই পদ্ধতির চাষ আমাদের এখানেও উপকুলবর্তী এলাকায় দেখা যায়। 

আমাদের রাজ্যের মতোই সারা পৃথিবীতে পার্শে মাছের চারা প্রাকৃতিক উৎস্য থেকেই বেশিরভাগ সংগ্রহ করা হয়। তবে আমাদের দেশে জুন, জুলাই ও আগষ্ট মাসে পার্শে মাছের বীজ বা চারা প্রাকৃতিক উৎস্য থেকে জাল দিয়ে সংগ্রহ করা নিষিদ্ধ ।

পার্শে মাছ হল ক্যাটাড্রোমাস ফিস অর্থাৎ এটি পরিযায়ী মাছ। পার্শে মাছ নোনা ও মিষ্টি উভয় জলে বেঁচে থাকতে পারে।

পার্শে মাছের প্রজনন স্বভাব অন্য মাছের চেয়ে কিছুটা বতিক্রমী। প্রাকৃতিক পরিবেশে শীতকালে (নভেম্বর-ফেব্রুয়ারি) এ মাছ অধিক লবণাক্ত জলে প্রজনন করে থাকে। চাষের জন্য চাষীরা প্রাকৃতিক জলাশয় হতে এ মাছের পোনা সংগ্রহ করে থাকে।

এবার এই পার্শে মাছের ব্যবসা কীভাবে করবেন, সে সম্পর্কে একটু জেনে নেওয়া যাক।

মাছের ব্যবসা (Profitable business) - 

এই মাছের হ্যাচারিতে কৃত্রিম প্রজনন করা যায়। ১-২ কেজি পরিনত পুরুষ ও  স্ত্রী মাছ নিতে হবে। তবে হ্যাচারিতে কৃত্রিম প্রজননের পূর্বে পার্শে মাছের পোনার ভক্ষণযোগ্য অতিক্ষুদ্র প্রাণীকণার চাষ এবং এই প্রাণীকণার খাদ্য হিসেবে এককোষী উদ্ভিদ চাষ ব্যবস্থাপনার উন্নয়ন করা প্রয়োজন। পরিপক্ক পার্শে মাছ অপ্রাণীভোজী হলেও ডিম হতে প্রস্ফুটিত পোনার ডিম্বথলি নিঃশেষ হওয়ার পর পোনার প্রাথমিক খাদ্য হিসাবে অতি ক্ষুদ্র জীবন্ত প্রাণীকণা খেয়ে এরা বড় হয়ে উঠে।

জুভেনাইল পার্শে মাছ যদিও কেবল নোনা জলেই বেঁচে থাকতে পারে। কিন্তু অপরিণত বাচ্চা অবস্থা থেকে ৪-৭ সেন্টিমিটার লম্বা হওয়ার পর থেকে পরিণত মাছ গুলি মিষ্টি ও নোনা উভয় ধরণের জলাশয়ে চাষ করা যায়। পার্শে মাছ মিস্টি জলের পুকুরে খুব ভালো করে চাষ করা যায় । তবে মিষ্টি জলে পরিপক্কতা আসে না, তাই পার্শে মাছের প্রজননের জন্য নোনাজলের প্রয়োজন হয়ে থাকে ।

  • পরিপক্ক পার্শে মাছ অপ্রাণীভোজী হলেও পোনার প্রাথমিক খাদ্য অতিক্ষুদ্র জীবন্ত প্রাণীকণা।

  • মাছ গুলি কেবল দিনের বেলায় খাবার গ্রহণ করে। এরা সাধারণত জলাশয়ের প্রাণীকণা, জৈব পদার্থ, তলদেশের কীট প্রভৃতি খাবার খায়।

মিশ্র চাষের জন্য পার্শে মাছের সাথে তবে কোন কোন মাছ কি ভাবে চাষ করা যায় ? 

কাতলা, কমন কার্প, গ্রাস কার্প, তেলাপিয়া বা আমুর কার্প, মিল্ক ফিস এর সাথে পার্শে মাছের চাষ করা যায়। প্রতি ডেসিম্যালে ১৫ টি ১০-১৫ গ্রাম ওজনের পার্শে মাছের চারাপোনার সাথে ১০টি ১০০ গ্রাম ওজনের কমন কার্প বা আমুর মাছ, ২টি সিলভার কার্প ও ১০-১৫ গ্রাম ওজনের ২৫০ টি তেলাপিয়া মাছ ছাড়া যেতে পারে। পার্শে মাছ ৭-৮ মাস চাষে ১-১.২ কেজি ওজন হয়ে থাকে ।  তবে বাজারের চাহিদা অনুযায়ী, আরো কিছুদিন মাছটি রেখে বড় করে বিক্রি করা যেতে পারে। 

আরও পড়ুন - ৫ টি সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা, যা থেকে উপার্জন হবে লক্ষাধিক

আবার প্রাকৃতিক উপায়ে জন্মানো পার্শে মাছের পোনা সংগ্রহ করার পর মৎস্যচাষীরা জলাশয়ে ছাড়ার পর চার-পাঁচ মাসের মধ্যে পার্শে মাছের ওজন দাঁড়ায় এক একটির ১৫০-২০০ গ্রাম পর্যন্ত।  স্থানীয় বাজারে এর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। পার্শে মাছের চাষ অত্যন্ত লাভজনক।

আরও পড়ুন - Onion Farming - কন্দ পেঁয়াজের এই প্রজাতির চাষ করে আয় করুন অতিরিক্ত অর্থ

English Summary: Rural youth can earn double the income by commercial fish farming of mullet fish

আপনার সমর্থন প্রদর্শন করুন

প্রিয় অনুগ্রাহক, আমাদের পাঠক হওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার মতো পাঠকরা আমাদের কৃষি সাংবাদিকতা অগ্রগমনের অনুপ্রেরণা। গ্রামীণ ভারতের প্রতিটি কোণে কৃষক এবং অন্যান্য সকলের কাছে মানসম্পন্ন কৃষি সংবাদ বিতরণের জন্যে আমাদের আপনার সমর্থন দরকার। আপনার প্রতিটি অবদান আমাদের ভবিষ্যতের জন্য মূল্যবান।

এখনই অবদান রাখুন (Contribute Now)

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.