এই পাখি পালন করে আপনি আয় করতে পারেন ৭ লক্ষ পর্যন্ত টাকা (EMU Bird Business)

Wednesday, 03 March 2021 11:51 PM
Emu Farm (Image Credit - Google)

Emu Farm (Image Credit - Google)

ভারতে রাজস্থান, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, গুজরাট, বিহার, কেরল, তামিলনাড়ু এবং মহারাষ্ট্রে এমু পাখির পালন (Bird Rearing) দ্রুত বাড়ছে। এটি এমন এক ধরণের পাখি, যার প্রতিটি অংশই কার্যকর। এই জন্যে এমু পালন লাভজনক ব্যবসা হিসাবে পরিচিত। এই পাখির এক একটি ডিম বাজারে বিক্রি হয় ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা এবং মাংস ১০০০ টাকা কেজি পর্যন্ত মূল্যে বিক্রয় হয়।

আপনি যদি এমু পালনের মাধ্যমে ভাল উপার্জন করতে চান, তবে প্রাথমিকভাবে ২০ জোড়া এমু পাখি দিয়ে আপনার ব্যবসা শুরু করুন। এতে আপনার ব্যয় হবে প্রায় দুই লাখ টাকার মতো। প্রথম বছরে দেড় থেকে দুই লাখ টাকা লাভ হলেও এরপর আপনি বার্ষিক ৬-৭ লাখ টাকার মুনাফা অর্জন করতে পারেন। একটি স্ত্রী এমু পাখি ১৭ থেকে ২০ মাসে ডিম দেওয়া শুরু করে এবং মরসুমে ৩০ থেকে ৪০ টি ডিম দেয়।

উটপাখির মতো দেখতে সদৃশ এমু পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম পাখি। শূন্য ডিগ্রী থেকে ৫০ ডিগ্রী তাপমাত্রায় সহজে বেঁচে থাকতে পারে এই পাখি।

ডিমের মূল্য ৫০০-৭০০ টাকা -

এর থেকে প্রাপ্ত তেলও যথেষ্ট ব্যয়বহুল, যা প্রতি লিটার পাঁচ হাজার টাকা পর্যন্ত মূল্যে বিক্রি হয়। এর মাংস কোলেস্টেরল ফ্রি এবং মাংসে রহিত তেল হার্টের জন্য উপকারী, যা ক্যান্সারের মতো বিপজ্জনক রোগ নিরাময়ে ঔষধ রূপে ব্যবহৃত হয়। পাথরের চিকিত্সা করতেও এর ব্যবহার হয়। এর তেল প্রসাধনী পণ্য তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। পার্স এবং জুতা সহ অন্যান্য জিনিস এর চামড়া থেকে তৈরি হয়।

এমুর বাচ্চা পালন -

  • এমুর বাচ্চা পালনকালে, তাদের খাবারের প্রতি বিশেষ মনোযোগ দেওয়া উচিত। বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে এমন ধরণের খাবার দিন, যাতে বাচ্চারা সহজেই খেতে পারে। অসুস্থ পাখিদের বিশেষ যত্ন নেওয়া উচিত।

  • মুরগির মতো এমুও তাজা ঘাস, পাতা এবং পোকামাকড় খায়।

  • এমুর জন্য সর্বদা পরিষ্কার জলের ব্যবস্থা রাখতে হবে।

  • এমুর বাচ্চা যত্ন সহকারে পালন করতে হয়। কারণ বাচ্চা এমু চঞ্চল প্রকৃতির হয়, ফলে অতিরিক্ত দৌড়াদৌড়ির কারণে পা ভেঙে যাওয়ার ভয় থাকে।

আরও পড়ুন - এই মরসুমে শুরু করুন পানীয় জলের ব্যবসা, লাভ নিশ্চিত (Mineral Water Business)

পালনকালে পরিচর্যা -

এমু পাখির ডিম খুব বড় এবং এর ওজন প্রায় ৩৭০ থেকে ৪৫০ গ্রাম হয়। এর ডিমগুলি একটি ইনকিউবেটারে ৪৮ থেকে ৭২ ঘন্টা রাখা হয়। এর পরে, ছানাগুলিকে এমন একটি ঘরে ৩ সপ্তাহ রাখুন, যাতে প্রতিটি ছানার জন্য ৪ বর্গফুট জায়গা থাকে। প্রতিপালনের ঘরে ২৫ থেকে ৪০ টি পর্যন্ত বাচ্চা একত্রে রাখা যায়। প্রথম ১০ দিনের জন্য বাচ্চাগুলিকে ৯০ ডিগ্রি ফারেনহাইটে রাখুন। এর পরে, তিন থেকে চার সপ্তাহের জন্য ৮৫ ডিগ্রি ফারেনহাইটে রাখতে হবে। বাচ্চা পালনের জন্য জল এবং পর্যাপ্ত খাবারের ব্যবস্থা রাখতে হবে। ঘরের ১০০ বর্গফুট অঞ্চলে একটি ৪০ ওয়াটের বাল্ব রাখতে হবে। ৩ সপ্তাহ পরে, একটি বড় ঘরে বাচ্চাগুলিকে স্থানান্তরিত করতে হবে। আর ১৪ সপ্তাহ পরে, বাচ্চাদের জন্য ৩০ ফুট খোলা জায়গা থাকা আবশ্যক, যাতে বাচ্চাগুলি স্বাভাবিকভাবে বড় হতে পারে।  

যোগাযোগ -

কলকাতার সিআইটি রোড, এন্টালি এমুর জন্য উপযুক্ত বাজার। চুক্তিমূলক চাষের জন্যও এখানে যোগাযোগ করা যেতে পারে।

আরও পড়ুন - গো-বর্জ্য থেকে শুরু করুন এই চার ব্যবসা, আয় হবে লক্ষাধিক (Earn Million From Cow Dunk Business)

English Summary: Want to be a millionaire? raising this birds can give you more profit

আপনার সমর্থন প্রদর্শন করুন

প্রিয় অনুগ্রাহক, আমাদের পাঠক হওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার মতো পাঠকরা আমাদের কৃষি সাংবাদিকতা অগ্রগমনের অনুপ্রেরণা। গ্রামীণ ভারতের প্রতিটি কোণে কৃষক এবং অন্যান্য সকলের কাছে মানসম্পন্ন কৃষি সংবাদ বিতরণের জন্যে আমাদের আপনার সমর্থন দরকার। আপনার প্রতিটি অবদান আমাদের ভবিষ্যতের জন্য মূল্যবান।

এখনই অবদান রাখুন (Contribute Now)

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.