Student Credit Card 2021: উচ্চশিক্ষায় নেই বাধা! ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ব্যাঙ্ক ঋণ পাবে ছাত্র-ছাত্রীরা

রায়না ঘোষ
রায়না ঘোষ
Student Credit Card Scheme (image credit- Google)
Student Credit Card Scheme (image credit- Google)

পশ্চিমবঙ্গ সরকার ছাত্র ছাত্রী দের উচ্চ শিক্ষার জন্য স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড (Student credit card) স্কিম নিয়ে এলো। এই স্কিমের ফলে এবার যারা টানা ১০ বছর এই রাজ্যে রয়েছেন তাঁরাই এই সুবিধে পাবেন। দশম শ্রেণী থেকে পড়ুয়ারা উচ্চশিক্ষার জন্য ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ব্যাঙ্ক ঋণ পাবেন WBSCCS এর মাধ্যমে।

২৪ এ জুন এই প্রকল্পের অনুমোদন হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, এবার থেকে সরকার এই ঋণের গ্যারান্টার হবে। দেশে-বিদেশে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে পড়ার খরচ চালানোর জন্য ছাত্র-ছাত্রীরা এই ঋণ নিতে পারবে। সরকারই এই টাকা অনলাইনে দিয়ে দেবে।

কারা আবেদন করতে পারবেন(Who can apply)?

১) দশম শ্রেণী থেকে পড়ুয়ারা উচ্চশিক্ষার জন্য ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ব্যাঙ্ক ঋণ পাবেন।

২) সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সীরা আবেদন করতে পারবেন।

৩) আবেদন করতে পারবেন রাজ্যে ১০ বছর ধরে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন এমন পরিবার ।

স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড-র সুবিধা(Benefits of student credit card):

১) রাজ্যের পড়ুয়াদের উচ্চশিক্ষায় সহজশর্তে ঋণ পাবেন ।

২) রাজ্য সরকার ওই ঋণের গ্যারান্টার হবে।বাবা-মা অথবা আইনি অভিভাবক ব্যাঙ্কের সাথে চুক্তিতে আবদ্ধ হবেনা শুধুমাত্র।

আরও পড়ুন -Liquid Urea: বাংলার কৃষিক্ষেত্রে প্রথম তরল ইউরিয়ার ব্যবহার হতে চলেছে

৩) ১ বছর পর ১৫ বছরের মধ্যে ওই ঋণ ফেরত দিতে হবে। তবে পাঠ্যক্রম শেষ হওয়া অথবা ছাত্র ছাত্রীদের চাকরিতে যোগদানের পর থেকে ১ বছর ঋণ পরিশোধ স্থগিদ রাখা যাবে।

৪) নাম মাত্র ৪ শতাংশ সুদের হারে এই ঋণ পাওয়া যাবে।

৫) সঠিক সময়ে এই ঋণ শোধ করলে সুদের উপর ১ শতাংশ ছাড় পাওয়া যাবে।

৬) কলেজ / বিশ্ববিদ্যালয় / এইচ.ই. প্রদানযোগ্য কোর্স ফি ইনস্টিটিউট (অন্তর্ভুক্ত) টিউশন ফি, পরীক্ষার ফি, গ্রন্থাগার ফি ইত্যাদি দেওয়া যাবে |

৭) বই / কম্পিউটার ল্যাপটপ / ট্যাবলেট ইত্যাদি কিনতে পারবে |

কোথা থেকে এই ঋণ পাওয়া যাবে(Which bank)?

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সমবায় ব্যাংক এবং এটি অনুমোদিত কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংক / জেলা কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকসমূহ । অন্যান্য স্বীকৃত পাবলিক / বেসরকারী সেক্টর ব্যাংকগুলি থেকে এই ঋণ দেওয়া হবে।

কিভাবে আবেদন করা যায়(How to apply)?

অনলাইন এ নির্দিষ্ট পোর্টাল https://wbscc.wb.gov.in/ থেকে আবেদন করা যাবে | ওয়েবসাইটে লগ ইন করে স্টুডেন্ট রেজিস্ট্রেশন অপশনটি সিলেক্ট করে শিক্ষার্থীরা নিজেদের নিবন্ধন করতে পারবেন। সমস্ত প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পর তারা স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডটি পেতে সক্ষম হবেন।

লোণ পরিশোধের সময়কাল(Loan Repayment) -

এই স্কিমের আওতায় শিক্ষার্থীরা ৪০ বছর বয়স পর্যন্ত সুবিধা নিতে পারে। চাকরি পাওয়ার পরে শিক্ষার্থীদের ১৫ বছর সময়ের মধ্যে লোণ পরিশোধ করতে হবে। লক্ষণীয় যে, যাতে শিক্ষার্থীরা সহজে লোণ নিতে পারে, তার জন্য আবেদন পদ্ধতিটিও খুবই সহজ রাখা হবে। শিক্ষার্থীরা অনলাইনে ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারে। পশ্চিমবঙ্গ স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড স্কিমটি আনুষ্ঠানিকভাবে ৩০ শে জুন ২০২১ সালে চালু করা হয়েছে। এর ফলে রাজ্যের শিক্ষার্থীরা তাদের আর্থিক অবস্থা ভালো না হলেও উচ্চশিক্ষা অর্জন করতে সক্ষম হবে।

প্রয়োজনীয় নথিপত্র(Required Document) -

আধার কার্ড

আবাসের শংসাপত্র

বয়সের প্রমাণ

রেশন কার্ড

আয় শংসাপত্র

ব্যাংক হিসাব বিবরনী

মোবাইল নম্বর

পাসপোর্ট সাইজের ছবি

টোল ফ্রী নং:

টোল ফ্রী নং : 18001028014

নিবন্ধ: রায়না ঘোষ

আরও পড়ুন -PM Kisan Samman Nidhi : কৃষকদের বছরে মিলবে ৪২০০০ টাকা, দেখে নিন পদ্ধতি

Like this article?

Hey! I am রায়না ঘোষ . Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters