ঔষধি উদ্ভিদ (Medicinal Herb) তুলসীর চাষ করে তিন মাসে ৩-৪ লক্ষ টাকা উপার্জন

KJ Staff
KJ Staff

একদিকে দেশে করোনাভাইরাসের কারণে সাধারণ মানুষের রোজগার বন্ধ, পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বেকারত্বের হার। অন্যদিকে এই মহামারীর সময় কৃষকদের অবস্থাও শোচনীয়। তবে শুধু এই সময়ই নয়, অনেক ক্ষেত্রে বিভিন্ন কারণবশত চাষীরা চাষকার্য থেকে ভালো পরিমাণ অর্থ উপার্জনে ব্যর্থ হন। তবে কিছু ঔষধি উদ্ভিদ আছে, যার আবাদ করে চাষীরা প্রভূত লাভবান হতে পারেন। রাজ্যের মহিলা চাষীরা তুলসী চাষ করে দেশ-বিদেশে নাম অর্জন করছেন। যদিও আমাদের এখানে শাকসবজি, ফলমূল এবং মশলা চাষ হয়, তবে এই মহিলা চাষীদের লাভের মূল উত্স হল তুলসি তুলসীর চাহিদা শুধু দেশে নয়, বিদেশেও রয়েছে।

ব্যয়ের পরিমাণ -

তুলসী চাষ শুরু করার জন্য আপনার বিপুল পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন হবে না। এক হেক্টরের জন্য প্রায় ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকার বিনিয়োগ প্রয়োজন, তবে আগাছা, সেচ ইত্যাদির খরচ ভিন্ন।

আয়ের পরিমাণ -

তুলসীর উদ্ভিদ থেকে দু ধরণের পণ্য পাওয়া যায়, বীজ এবং পাতা। যদি তুলসীর বীজ সরাসরি বাজারে বিক্রি করা যায়, তবে বীজের দাম প্রতি কেজি প্রায় দেড়শ থেকে ২০০ টাকা এবং এর তেলের দাম প্রতি কেজি প্রায় ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা। সুতরাং, এই উদ্ভিদের চাষ করে সহজেই লক্ষাধিক আপনি উপার্জন করতে পারবেন।

তুলসী কেন উপকারী -

তুলসী চাষের জন্য খুব বেশী জল প্রয়োজন হয় না, স্বল্প সেচেই এর উত্পাদনের পরিমাণ ভাল হয়। একবার রোপণ করা হলে, উদ্ভিদটি থেকে ৩-৪ বার পর্যন্ত ভালো ফলন পাওয়া যায়। এর সর্বোচ্চ চাহিদা চা আকারে, যা আজকের সময়ের স্বাস্থ্যের পক্ষে সবচেয়ে উপকারী।

তুলসীর গুনাগুণ –

কীট প্রতিরোধক হিসাবে কাজ করে - কয়েক শতাব্দী ধরে, তুলসীর শুকনো পাতাগুলি ফসলে কীটের আক্রমণ প্রতিহত করার জন্য সংরক্ষণ করা শস্যের সাথে মিশ্রিত করে ব্যবহৃত হচ্ছে।

প্রাকৃতিক অনাক্রম্যতা বৃদ্ধি করে – তুলসী ভিটামিন সি এবং জিঙ্ক সমৃদ্ধ। এটি প্রাকৃতিক প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির হিসাবে কাজ করে এবং সংক্রমণকে উপশম করে। এতে প্রচুর অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়া, অ্যান্টি-ভাইরাল এবং অ্যান্টি-ফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা আমাদের বিভিন্ন সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে।

গ্যাস্ট্রোইনটেস্টিনাল সমস্যা রোধে সহায়ক - তুলসী পাতা বদহজম থেকে শুরু করে পেটের যে কোন সমস্যার চিকিত্সার জন্য ব্যবহৃত হয়।

ত্বক এবং চুলের জন্য ভাল:

তুলসী ত্বকের দাগ পরিষ্কার করতে সহায়তা করে। এটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলিতে সমৃদ্ধ এবং এটি শরীরে বার্ধক্যের ছাপ রোধ করতে সহায়তা করে। তুলসী আমাদের চুল পড়া রোধ করে চুলকে শক্তিশালী করে তোলে।

ঠান্ডা লাগা, কাশি এবং অন্যান্য শ্বাসকষ্টজনিত ব্যাধি হ্রাস করে - তুলসীতে উপস্থিত ক্যাম্ফিন, সিনোল এবং ইউজেনল বুকে কফ বসে যাওয়া থেকে শরীরকে প্রতিরোধ করে।

মধু ও আদা মিশ্রিত তুলসীর পাতার রস ব্রঙ্কাইটিস, হাঁপানি, ইনফ্লুয়েঞ্জা, কাশি এবং সর্দিতে কার্যকর।

স্ট্রেস এবং রক্তচাপ হ্রাস করে:

তুলসীতে যৌগ ওসিমামোসাইডস এ এবং বি রয়েছে , যা মস্তিষ্কে নিউরোট্রান্সমিটার সেরোটোনিন এবং ডোপামিনের ভারসাম্য বজায় রেখে স্ট্রেস এবং রক্তচাপ কমাতে সহায়তা করে।

ক্যান্সার রোগ প্রতিরোধ - তুলসীতে উপস্থিত ফাইটোকেমিক্যালগুলি শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ। সুতরাং, ত্বক, লিভার, ওরাল এবং ফুসফুসের ক্যান্সার থেকে শরীরকে রক্ষা করতে সহায়তা করে।

হার্টের স্বাস্থ্যের জন্য ভাল (Heart Health) -

রক্তের লিপিড কন্টেন্ট কমিয়ে, স্কেমিয়া এবং স্ট্রোক হওয়া থেকে মানুষকে রক্ষা করে, উচ্চ রক্তচাপ হ্রাস করে এবং উচ্চতর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্যের কারণে তুলসি হৃদরোগ সংক্রান্ত রোগের চিকিত্সা ও প্রতিরোধে গভীর প্রভাব ফেলেছে।

কিডনিকে সুরক্ষা প্রদান করে - তুলসী দেহে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা হ্রাস করে, যা কিডনিতে পাথর হওয়ার প্রধান কারণ। শরীরকে ডিটক্সাইফাই করে এটি কিডনিকে সুরক্ষা প্রদান করে।

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য ভাল – গবেষণা অনুযায়ী দেখা গেছে, তুলসী পাতার নিষ্কাশিত রস টাইপ ২ ডায়াবেটিস রোগীদের রক্তের গ্লুকোজ স্তর কমায়।

ঔষধি গুণে সমৃদ্ধ ভেষজ এই উদ্ভিদটির দেশে এবং বিদেশে চাহিদা ক্রমশই বৃদ্ধি পাচ্ছে। কিন্তু আমাদের দুর্ভাগ্য যে দেশের অনেক চাষীই এখনও এই উদ্ভিদটির লাভজনক বাণিজ্যিক চাষ সম্পর্কে অবগত নন। তুলসীর মতো ঔষধি গাছের আবাদের সুবিধা হ', এর চাষে স্বল্প সময় এবং কম খরচে ভাল লাভ করা যায়। মাত্র ৩ মাসে ১৫,০০০ থেকে ২০,০০০ টাকা বিনিয়োগ করে আপনি ৩-৪ লক্ষ টাকা উপার্জন করতে পারবেন। সুতরাং, এটি অর্থ উপার্জনের একটি দুর্দান্ত উপায়।

Related Link - 

আগত মরসুমে তিলের (Sesame Cultivation) চাষ চাষ করে কৃষক সহজেই উপার্জন করতে পারেন অতিরিক্ত অর্থ

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters