(Yono Krishi application) সরকারের সহায়তায় এবার ঘরে বসেই পাবেন ফসলের প্রত্যয়িত বীজ

KJ Staff
KJ Staff
Digital application for farmer
Digital application for farmer

এই ডিজিটাল যুগে যেখানে প্রতিটি লেনদেন, এবং সংযোগ ডিজিটালি নিয়ন্ত্রণ করা যায়, সেখানে এখন ডিজিটাল সিস্টেম আত্মস্থ করার পালা কৃষকের। ডিজিটালাইজেশন কৃষকদের কাজকে অনেকাংশে সহজ এবং সুবিধাজনক করে তুলতে পারে। রিপোর্ট অনুসারে, কৃষকরা সহজেই এই অ্যাপের মাধ্যমে অনলাইনে প্রত্যয়িত বীজ কিনতে পারবেন। এই জন্য, তাদের কেবল অনলাইনে অর্থ প্রদান করতে হবে।

ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ হর্টিকালচারাল রিসার্চ দেশের প্রথম সীড পোর্টাল চালু করেছে, যেখানে সারা দেশের কৃষকরা অনলাইনে অর্থ প্রদানের পরে ঘরে বসে ৬০ টি উদ্যান ফসলের বীজ ক্রয় করতে পারেন।

Yono কৃষি অ্যাপ্লিকেশন প্রচলন -

ভারতের প্রথম 'সীড পোর্টাল' ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও কৃষক কল্যাণ, পল্লী উন্নয়ন ও পঞ্চায়েতি রাজ মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর দ্বারা প্রবর্তিত স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার 'ইয়েনো কৃষি অ্যাপ্লিকেশন' এর সাথে একীভূত হয়েছে। অ্যাপটির সংহতকরণের ফলে দেশের কোটি কোটি কৃষক বীজ ক্রয় সহ সরকারী প্রকল্প এবং ব্যাংকের সুবিধাগুলির ডিজিটালভাবে সুবিধা নিতে পারবেন।

Yono Krishi App - Seed portal
Yono Krishi App - Seed portal

'কৃষি ইয়েনো অ্যাপ' –এ কী ধরণের বীজ পাওয়া যাবে (What kind of seeds can be available in 'Krishi Yono App') -

টমেটো, পেঁয়াজ, ভেন্ডি, বেগুন, মরিচ, হাইব্রিড মরিচ, তরমুজ, খরমুজ, ক্যাপসিকাম, মূলা, কাঁচা মটর, মটরশুটি, আমড়া, শাক, ধনে, ফরাসি বিন, বীজ পোর্টালের মাধ্যমে অর্ডার দেওয়া যেতে পারে।

কর্মসূচিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তোমর বলেছিলেন, "কৃষি ক্ষেত্র চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে, তবুও কৃষকদের অক্লান্ত পরিশ্রম এবং বিজ্ঞানীদের গবেষণা এবং সরকারের সহায়তার কারণে এই ক্ষেত্রটি দেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে রয়েছে। পাশাপাশি দেশের খাদ্য প্রয়োজনীয়তা পূরণের সাথে সাথে জিডিপিতে অবদান রাখার দৃষ্টিকোণ থেকেও কৃষিকাজ গুরুত্বপূর্ণ। সরকার সর্বদা কৃষকদের আয় এবং জিডিপিতে কৃষিক্ষেত্রের অবদান দ্বিগুণ করার চেষ্টা করে চলেছেন। এই দৃষ্টিভঙ্গি থেকে ভারত সরকার অনেকগুলি প্রকল্প পরিচালনা করেছে। উদ্যানচাষ কৃষি খাতে ৩২ শতাংশ অবদান রাখে, যা বাড়ানো দরকার।

কৃষকের উন্নয়ন

প্রধানমন্ত্রী উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি প্রতিটি গ্রাম এবং সকল কৃষকের কাছে সরকারী সহায়তা গ্রহণ করতে জোর দিয়েছিলেন, যাতে কেউ কৃষকের অধিকার নিতে না পারে, এজন্য সরকার ডিজিটাল ইন্ডিয়ার প্রতি মনোযোগ দিয়েছেন। এর পশ্চাতে উদ্দেশ্য হল কৃষি খাতে স্বচ্ছতা রাখা এবং দুর্নীতির সুযোগগুলি অবিলম্বে সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করা।

কৃষিমন্ত্রী আরও বলেছেন যে, "প্রযুক্তি ব্যবহার করে, গ্রামীণ খাতে পৌঁছে যাওয়ার একটি বিশাল সুবিধা রয়েছে, এতে ব্যাংকগুলির সুবৃহৎ অবদান রয়েছে এবং এক্ষেত্রে এসবিআইও একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা করছে।

Image source - Google 

Related Link - (Karan Vandana) এই প্রজাতির গম চাষে ফলন হবে ৮০ কুইন্টাল পর্যন্ত

(Ration card update) নতুন রেশন কার্ড নেই? অথবা তালিকা থেকে নাম বাদ পড়েছে? সকল সমস্যার সমাধান হবে এক ক্লিকেই

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters