(Crop protection) আরও চারটি প্রধান ফসল এখন পিএমএফবিওয়াই-এর আওতায়, ফসল বীমার মাধ্যমে এই মরসুমে শস্যের সুরক্ষা নিশ্চিত করুন

KJ Staff
KJ Staff
Crop Insurance
Crop Insurance

হরিয়ানা সরকার প্রধানমন্ত্রী ফসল বিমা যোজনার আওতায় বীমা করার জন্য আরও চারটি শস্যকে অন্তর্ভুক্ত করল। ধান, তুলা, ভুট্টা এবং বাজরা এই চারটি শস্যের ওপর একর প্রতি প্রিমিয়াম এবং বীমার পরিমাণ নির্ধারণ করা হয়েছে।

হরিয়ানার কৃষি এবং কৃষক কল্যাণ বিভাগের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব সঞ্জীব কৌশল বলেছেন যে, এই প্রকল্পের অধীনে গ্রাম পঞ্চায়েতকে একটি বীমা ইউনিট হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের পোর্টালে সকল কৃষকের বীমা কভারেজ পাওয়া বাধ্যতামূলক। প্রিমিয়ামের পরিমাণ কেবল এনসিআইপি পেমেন্ট গেটওয়ে পে গভ-এর মাধ্যমে প্রেরণ করা যাবে। এছাড়া সমস্ত কৃষকের আধার নম্বর থাকা বাধ্যতামূলক।

সঞ্জীব কৌশল জানিয়েছেন, তুলা, বাজরা, ভুট্টা এবং ধান চাষীদের এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। যে সমস্ত কৃষক এখনও পর্যন্ত ঋণ নেননি, তাঁরা তাঁদের ব্যাঙ্ক বা অনুমোদিত মধ্যস্থতাকারী মারফত অটল সেবা কেন্দ্র কিংবা পোর্টালের মাধ্যমে বীমা করাতে পারবেন। শুধু তাই নয়, কোনও বড়সড় প্রাকৃতিক দুর্যোগ হলে স্থায়ী ফসলের গড় ফলন হ্রাসের ভিত্তিতে বীমাটি করা যাবে। দাবানলের কারণে যদি ক্ষয়ক্ষতি হয় কৃষিক্ষেত্রের, তাহলে তার লোকসানের খরচ পাওয়া যাবে। ফসল কাটার পর ১৪ দিন পর্যন্ত মাঠে ফসল শুকোনোর সময় যদি ঘূর্ণিঝড়, প্রবল বৃষ্টিপাত বা শিলাবৃষ্টি হয়ে ফসল নষ্ট হয়, তাহলে এই বীমার অন্তর্ভুক্ত থাকার দরুণ এই লোকসানের খরচ কৃষকরা পাবেন।

এদিকে কিছুদিন আগেই একটি সাংবাদিক বৈঠকে হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর জানান, প্রধানমন্ত্রী ফসল বীমা যোজনা (পিএমএফবিওয়াই)-এর অধীনে তুলার প্রিমিয়ামে ভর্তুকি দেওয়া চলবে না। খট্টর জানিয়েছেন, তিন বছর ধরে প্রিমিয়ামের ওপর ৩% ভর্তুকি দিয়ে এসেছে সরকার। তুলা একটি বাণিজ্যিক ফসল। কৃষকদের প্রিমিয়াম হিসেবে বীমাকৃত পরিমাণের ওপর ৫% দিতে হয়। কিন্তু এবছর সরকার অন্য ফসলগুলির ওপরই বেশি মনোযোগ দিতে চাইছেন।

(Crop insurance) কী সুবিধা পাবেন ফসল বীমা করলে? কীভাবেই বা আবেদন করবেন, রইল সকল তথ্য কৃষক বন্ধুদের জন্য

PMFBY
PMFBY

পিএমএফবিওয়াইয়ের নির্দেশাবলী অনুসারে, একজন কৃষককে খারিফ ফসলের ক্ষেত্রে বীমাকৃত পরিমাণের ২% এবং রবি ফসলের ক্ষেত্রে ১.৫% প্রদান করতে হবে প্রিমিয়াম হিসেবে। এবছর প্রিমিয়ামের অংশ নির্ধারণ করা হয়েছে নিম্নোক্ত ভিত্তিতে, ধানের জন্য একর প্রতি ৫০ টাকা, ভুট্টার জন্য একর প্রতি ১০০ টাকা, বাজরার জন্য একর প্রতি ৪০ টাকা, তুলার জন্য একর প্রতি ১৩০০ টাকা, যব প্রতি একরে আট টাকা, গম এবং সূর্যমুখী প্রতি একর ১৫ টাকা এবং সরিষার জন্য একর প্রতি ১৩০ টাকা।

ত্রয়ী মুখার্জী

Image Source - Dainik Jagran & The Hindu

Related Link - পশ্চিমবঙ্গের কৃষকরা ফসল বীমার জন্য ক্লিক করুন - (‘Bangla Shasya Bima Yojana’ free crop insurance) ‘বাংলা শস্য বীমা যোজনা’ – সম্পূর্ণ বিনামূল্যে কৃষকদের জন্য ফসল বীমা, কৃষকবন্ধুরা আজই আবেদন করুন আর ফসলের সুরক্ষা সম্পর্কে নিশ্চিন্ত থাকুন

(State bank of India) এসবিআই-এ অ্যাকাউন্ট রয়েছে, পাবেন ১ ঘণ্টায় ১০ লক্ষ পর্যন্ত লোণ

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters